ভিক্ষা নয়, ন‍্যায‍্য পাওনা চাইছি! একাধিক সংগঠনের স্বীকৃতি পেয়ে উজ্জীবিত BGTA

নজরবন্দি ব্যুরোঃ নববর্ষের আগেই BGTAএর দাবি কে মান‍্যতা দিল শিক্ষক সংগঠন গুলি।  দীর্ঘ দু দশক ধরে এরাজ্যে "পাস" নামক অনৈতিক তকমা লাগিয়ে গ্র‍্যাজুয়েট টিচারদের বেতন বৈষম্যের ঘটনাটিকে অবশেষে শতাব্দী প্রাচীন শিক্ষক সংগঠনও মর্যাদা দিল। STEA ও তাদের সম্মেলনের মঞ্চ থেকে সেই স্বীকৃতি দিয়েছে BGTA-র দাবি-কে। তার আগে BTEA নামক সংগঠন-ও মান্যতা দিয়েছে বলেও জানান বিজিটিএ এর রাজ্য সম্পাদক সৌরেন ভট্টাচার্য।
তিনি বলেন,"সত্য সব সময় সূর্যের ন্যায় ভাস্বর।এক সময় যে শিক্ষক সংগঠন গুলি গ্র‍্যাজুয়েট টিচার দের শুধু ব্যাবহার'ই করেছে, প্রাপ্য মর্যাদা দেয়নি আজ তারাই আমাদের আন্দোলনে দিশেহারা হয়ে নিজেদের মাটি আলগা হয়ে যাওয়ার ভয়ে, আমাদের গ্র‍্যাজুয়েট শিক্ষক দের টিজিটি স্কেল পাওয়ার দাবী কে নিজেদের দাবী সমূহের মধ্যে রাখতে একপ্রকার বাধ্য হয়েছে।"
BGTA রাজ্য সভাপতি ধ্রবপদ ঘোষাল বলেন," সরকারও আমাদের দাবী কে মান‍্যতা দেবে, কারন আমরা ভিক্ষা নয় আমাদের ন‍্যায‍্য পাওনা চাইছি।" সহ সভাপতি সতিশ চন্দ্র মাহাতো আবেদন করেন,  সবাই মিলে BGTA কে আদর্শ শিক্ষক সংগঠন হিসেবে গড়ে তোলার। যেখানে শুধু স্কেল সংক্রান্ত দাবি দাওয়া নয় তার পাশাপাশি শিক্ষা ব্যাবস্থাকেও নিপুন ভাবে গড়ে তোলার কথা তিনি বলেন। রাজ্য কমিটির অন্যতম সদস্য রত্নদ্বীপ সামন্তর কথায় "নর্ববর্ষের প্রাক্কালে আসুন অঙ্গীকার করি শিক্ষা ও স্নাতক শিক্ষক দের স্বার্থে আমরা আমাদের অরাজনৈতিক শিক্ষক সংগঠন BGTAকে এক অনন্য মর্যাদার আসনে প্রতিষ্ঠিত করি।"
Bengali Movie Air Hostess

DESCRIPTION OF IMAGE
Loading...

No comments

Theme images by caracterdesign. Powered by Blogger.