৬০ বছরের বেশি বয়েসের কৃষক-রা কি অমর? মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণা ঘিরে ধোঁয়াশা।

নজরবন্দি ব্যুরোঃ রাজ্যের কৃষকদের জন্য নতুন প্রকল্পের কথা জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নতুন বছর শুরুর ঠিক আগের দিন নবান্নে তিনি ঘোষণা করেছেন, এখন থেকে রাজ্যে কৃষকদের মৃত্যুতে আর্থিক সাহায্য দেবে সরকার। এর পাশাপাশি চাষের জন্য অনুদান দেওয়া হবে।
মুখ্যমন্ত্রীর কথা অনুসারে এই প্রকল্পের নাম কৃষক-বন্ধু। অনেক পাঠকের মনে প্রশ্ন হতেই পারে কেমন হবে এই প্রকল্প, কারা এর আওতায় থাকবেন, কীভাবে টাকা পাওয়া যাবে, সবটাই এদিন ব্যাখ্যা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর কথা অনুসারে, যে সমস্ত কৃষকের বয়স ১৮ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে, তাঁদের মৃত্যু হলে সরকারের তরফে দেওয়া হবে ক্ষতিপূরণ। তারা পাবে ২ লক্ষ টাকা করে।
মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্য, কোনও কৃষকের মৃত্যু হলে তাদের পরিবার সমস্যায় পড়েন। সেই কারণেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।এছাড়াও কৃষক বন্ধু প্রকল্পের আওতায় চাষিরা একর প্রতি ৫ হাজার টাকা করে পাবেন।
আর মুখ্যমন্ত্রীর এই ঘোষণা ঘিরেই শুরু হয়েছে বিতর্ক। সিপিআইএম তথা খেতমজুর সংগঠনের নেতা অমিয় পাত্র প্রশ্ন তুলেছেন মুখ্যমন্ত্রীর এই বয়েস নির্দিষ্ট করে দেওয়া কে নিয়ে, তাঁর কথায় "১৮-৬০ বছর বয়সে মারা গেলে চাষি ও খেতমজুরদের ২ লক্ষ টাকা করে দেওয়া হবে বলা হচ্ছে, ৬০+ রা কি অপরাধ করল? তারা কি অমর? সমাজে তাদের কি কোন অবদান নেই?
এছাড়াও আরও কয়েকটি বিষয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। যেমন মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন একর প্রতি ৫০০০ টাকা সেক্ষেত্রে যে কৃষকের জমি এক একরের কম তিনি কত টাকা পাবেন? বা আদেও পাবেন কিনা। সিপিআইএম কর্মী বিপ্লব ব্যানার্জী প্রশ্ন তুলেছেন "মারা গেলে ২ লক্ষ টাকার বিষয়টি পরিষ্কার নয় এখানে কী স্বাভাবিক মৃত্যু নাকি আত্মহত্যা র কথা বলা হচ্ছে? তাছাড়া মৃত্যু পর্যন্ত অপেক্ষা কেন! কৃষি ঋন মকুব,ফসলের সঠিক দাম আর সেচের খরচ কমালেই তো কৃষক জীবত অবস্থাতেই ভালো থাকতে পারে।
Loading...

No comments

Theme images by caracterdesign. Powered by Blogger.