কথা রাখেন নি মুখ্যমন্ত্রী, নিয়োগের ব্যবস্থা না করলে বৃহত্তর আন্দোলনের হুমকি পিটিটিআই পড়ুয়াদের!

নজরবন্দি ব্যুরো: রাজ্যে পিটিটিআই পড়ুয়াদের লড়াই শুধু এই সরকারের সময় নয়। এই লড়াই শুরু হয়েছে আগের সরকারের সময় থেকে। বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী যখন বিরোধী নেত্রী ছিলেন তখন তিনি প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন রাজ্যের ক্ষমতায় এলে এই সমস্যার সমাধান করবেন।
২০১১ সালে ক্ষমতায় আসার পরে রাইটার্সে দাঁড়িয়ে প্রেস কনফারেন্স করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছিলেন, ২০০৫-২০০৬ সেশন পর্যন্ত সমস্ত বঞ্চিত পিটিটিআই পড়ুয়াদের তিন ধাপে তিন বছরের মধ্যে নিয়োগের করবেন।
কিন্তু এতো বছর পার হবার পরেও তা কার্যকর এখনও করা হয় নি।

এর পরে ২০১১ বাজেটে বিধানসভায় পিটিটিআই পড়ুয়াদের জন্য ১০ শতাংশ সংরক্ষণের কথা উল্লেখ করে রাজ্য সরকার। কিন্তু তার সুবিধা এখনও একজনকে পর্যন্ত দেওয়া হয় নি। যদিও পরে সুপ্রিম কোর্ট এই সমস্যা সমাধানের জন্য তিন মাসের মধ্যে নিয়োগের নির্দেশ দেয়।
এর পর মুখ্যমন্ত্রী তাঁর প্রতিশ্রুতি মতন এই সমস্যা যাতে সমাধান করেন তার জন্য একাধিকবার অনুরোধ করেন পিটিটিআই পড়ুয়ারা। কিন্তু তাতেও কাজের কাজ কিছুই হয় নি।

এর পর বাধ্য হয়ে আজ W.B.P.T.T.A এই সংগঠনের নেতৃত্বে প্রায় কয়েক হাজার পিটিটিআই পড়ুয়ারা সেন্ট্রাল এভিনিউ মেট্রো স্টেশন থেকে ধর্মতলা পর্যন্ত বিশাল র‍্যালি করেন। তাদের দাবি তাদের নিয়োগের ব্যবস্থা করতে হবে সরকারকে। এর পরে ৫ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল নবান্নে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর প্রতিনিধির কাছে স্মারকলিপি জমা দেন। এবং তাদের দাবি ১৫ দিনের মধ্যে রাজ্য সরকার নিয়োগের ব্যবস্থা না করলে তারা বৃহত্তর আন্দোলনের পথে এগোবে। 
DESCRIPTION OF IMAGE
Loading...

No comments

Theme images by caracterdesign. Powered by Blogger.