শিক্ষকদের 'শিক্ষক' মর্যাদা এবং বেতন বৃদ্ধির দাবীতে 'ডান্ডি' অভিযানের ঘোষণা ঐক্য মঞ্চের।

নজরবন্দি ব্যুরোঃ রাজ্যের প্রায় ৬০ হাজার SSK/MSK/AS, মাদ্রাসা ও পৌরসভার SSK/MSK শিক্ষক শিক্ষিকারা গত ৮ বছর ধরে বঞ্চিত,অবহেলিত বলে অভিযোগ রয়েছে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে৷ গত ৮ বছরে বিভিন্ন সংগঠন বারবার চেষ্টা করা সত্বেও তাদের বেতন ১ টাকা ও বৃদ্ধি হয়নি৷ অনিয়মিত এবং খুব সামান্য ভাতা (৫৯৫৪& ৮৯৩৬ টাকা) পান এই শিক্ষকরা৷ এই শিক্ষকরা পিছিয়ে পড়া ছাত্র/ছাত্রীসহ সমাজের বড়ো অংশের ছেলেমেয়েদের শিক্ষাদান করেন তবু সরকার তাদের শিক্ষক শিক্ষিকার মর্যাদা দেয় না, তাদেরকে সহায়ক/সহায়িকা বলা হয়।
এমতাবস্থায় তাদের জীবন জীবিকার স্বার্থে ,সম্মানের স্বার্থে নায্য অধিকারের দাবীতে শিক্ষক ঐক্য মুক্তমঞ্চের আহ্বানে আগামি ১২ ই জুন বুধবার দুপুর ১২ টায় বিকাশভবন অভিযানের মাধ্যমে ধর্ণা কর্মসুচী গ্রহন করা হয়েছে, সল্টলেকের করুনাময়ীতে। শিক্ষক ঐক্য মুক্ত মঞ্চের সভাপতি সুজিত দাস জানিয়েছেন
"গত ১—৭ই মার্চ টানা ৭ দিনরাত খোলা আকাশের নিচে ,পুলিশের বাধা উপেক্ষা করে বেতনবৃদ্ধির দাবীতে ধর্ণা কর্মসুচী হয়েছিল এবং গত ৩১ শে মার্চ শিয়ালদহ থেকে ধর্মতলাতে মহামিছিল হয়েছিল৷ ঐতিহাসিক ঐ আন্দোলনে  রাজ্যপালের মধ্যস্থতায় শিক্ষামন্ত্রী বেতনবৃদ্ধি সহ অন্যান্য দাবী আদায়ের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন৷ এবং বলেছিলেন ৩০০ কোটি টাকা বরাদ্দ হয়েছে কিন্তু নির্বাচনের জন্য সরকারী অর্ডার দেওয়া যাচ্ছে না ভোটের পরে দেবেন৷
  ভোট মেটার পরে আমরা শিক্ষামন্ত্রীর সাথে যোগাযোগ করেছি উনি দেরী হবে বলে টালবাহানা করছেন৷ তাই আমরা সরকারকে আগামি ১০ ই জুন অব্দি সময় দিয়েছি যদি সরকারী অর্ডার না দেয় তাহলে বৃহত্তর আন্দোলন করব আগামি ১২ তারিখ থেকে৷"
 শিক্ষক ঐক্য মুক্তমঞ্চের সাধারণ সম্পাদক মইদুল ইসলাম জানিয়েছেন, "এবার আন্দোলনের মাত্রা তীব্র থেকে তীব্রতম হবে আর আন্দোলন দাবী আদায় করেই সরকারী অর্ডার নিয়েই শেষ হবে
আমাদের দাবীগুলি হলোঃ
১. যোগ্যতা অনুসারে সমকাজে সমবেতন৷
২. শিক্ষাদপ্তরে অন্তভুর্ক্তিকরন৷ মাদ্রাসার SSK/MSK দের মাদ্রাসা দপ্তরে৷
৩, পেনশন সহ অবসরকালীন সুযোগ সুবিধা প্রদান৷
৪.নির্দিষ্ট সময়ে বেতন সহ  উৎসব বোনাস৷
৫, প্রশিক্ষণরত শিক্ষক শিক্ষিকাদের NIOS র মাধ্যমে সমস্যার সমাধান
৬. অন্যান্য দাবীসমুহঃ
বিশেষ অনুরোধ সকল শিক্ষক শিক্ষিকা অ সুপারভাইসররা নিজের পরিবারকে সাথে নিয়ে জীবনে চরমতম ও ঐতিহাসিক লড়াইতে আসুন ৷ এমনিতেই অর্থের অভাবে প্রতিদিন খবর পাই কারোর না কারোর মৃত্যু হচ্ছে৷ আসুন আগামি প্রজন্মকে দেখিয়ে দি লড়াই করে দাবী কিভাবে ছিনিয়ে আনতে হয়।"
 শিক্ষক ঐক্য মুক্তমঞ্চের পক্ষ থেকে প্রয়োজণীয় নির্দেশ জারি করে বলা হয়েছে,
১.প্রত্যেকে তাদের পরিচিত দের এই কর্মসূচীর করা বলুন
২. বন্ধুবান্ধব পরিবার নিয়ে আসুন
৩. প্রয়োজনে দাবী না মেটা পর্যন্ত কলকাতার রাজপথে থাকতে হবে সেরুপ ব্যবস্থা করে আসবেন
বিকাশ ভবন অভিযানের সাথে এই অভিযানের নাম হবে মহাত্মা গান্ধীর দান্ডী অভিযান তাই যাদের বয়স ৫৫ র উপরে প্রত্যেকে নিচের মতো করে একটা ভালো লাঠি (মোটা দেখে) বানিয়ে নিয়ে আসবেন এটা অনুরোধ খুবই কাজে লাগবে!
Loading...

No comments

Theme images by caracterdesign. Powered by Blogger.