আমার পক্ষে আর দেওয়া সম্ভব নয়, ডিএ মামলার রায়ের পরে প্রতিক্রিয়া মুখ্যমন্ত্রীর।

নজরবন্দি ব্যুরো: ডিএ প্রদান নিয়ে রাজ্য সরকারের অনীহার কথা সবার জানা। আর আজ এই ডিএ মামলার রায় সরকারি কর্মচারীদের পক্ষে যায়। এই রায়ে খুশি রাজ্য সরকারি কর্মচারীরা।

"আমার পক্ষে আর দেওয়া সম্ভব নয় এখন। তোমরা সবসময়ই এই দাও, ওই দাও করছ। সবটাই সরকার যেন বিনা পয়সায় করে দেবে।" ডিএ মামলায় স্যাটের রায়ের বেরনোর পরই মধ্যমগ্রামে প্রশাসনিক সভায় এমন মন্তব্য করলেন মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
এর পরে মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, " সরকার ট্যাক্স বাড়াবে না। বিদ্যুতের দামও বাড়াবে না। বিনা পয়সায় চিকিৎসা করাবে। বিনা পয়সায় শিক্ষার ব্যবস্থা করবে। ২ টাকা কেজি দরে চাল দেবে। জলের ব্যবস্থা করবে। এত টাকা কোথা থেকে আসবে? সরকারটা চলবে কোথা থেকে?

প্রসঙ্গত, বর্তমানে রাজ্য সরকারি কর্মীরা ১২৫ শতাংশ হারে মহার্ঘ ভাতা পাচ্ছেন, যা কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের থেকে ৫৬ শতাংশ কম। বহু প্রতীক্ষিত এই মামলার রায়দান হয়ে গেল আজ, রাজ্য ট্রাইব্যুনালের দুই বিচারপতি রঞ্জিত কুমার বাগ এবং সুবেশ কুমার দাস এই মামলার রায় দেন। রায় কর্মচারীদের পক্ষেই গিয়েছে।  আজ দীর্ঘ সওয়াল জবাবের পর এবার রাজ্য সরকারকে কড়া নির্দেশ দিল স্যাট।
মামলার শুনানিতে বিচারক জানিয়ে দিয়েছে, কেন্দ্রীয় হারেই দিতে হবে রাজ্য সরকারি কর্মীদের মহার্ঘ ভাতা বা ডিএ। যদিও এক বছরের মধ্যেই তা কার্যকর করার কথা বলা হয়েছে। আগামী তিন মাসের মধ্যেই মহার্ঘ ভাতার হার নির্ধারণ করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এই মামলায় পরাজয়ের পর রাজ্য সরকার উচ্চ আদালতে যেতে পারে বলে মনে করছে আইনজীবীরা। 
Loading...

No comments

Theme images by caracterdesign. Powered by Blogger.