Header Ads

শিক্ষিকাদের উদ্দেশ্যে 'কুরুচিকর মন্তব্য'!শিক্ষামন্ত্রীকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চেয়ে পদত্যাগের দাবি।

নজরবন্দি ব্যুরোঃ আজ কলকাতায় নজরুল মঞ্চে তৃণমূল প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির এক সভায় রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় শিক্ষিকাদের নিয়ে এক কুরুচিকর মন্তব্য করেন বলে অভিযোগ উঠল। শিক্ষিকাদের বদলির প্রসঙ্গে তিনি বলেন "এত বেশি মহিলা শিক্ষিকা কী করে স্ত্রী-রোগে ভুগছেন জানি না, আমি নিজে খুব আতঙ্কিত!" এরপর শিক্ষামন্ত্রী সংযোজন করেন "এটা কি হচ্ছে? জেনুইন কিছু থাকলে আমরা অবশ্যই দেখবো৷ আমি তো বলেছি জেলা শিক্ষিকাদের জেলায় রাখতে৷ আপনি যখন মহিলা ছিলেন, মানে যখন অবিবাহিত মহিলা, আপনি কল্যাণীতে কাজ করতেন৷ বিয়ে করে চলে গেলেন কাকদ্বীপে৷ এবার ট্রান্সফারের কারণ কী? বর আছে বেহালায়!"
শিক্ষা মন্ত্রীর এই বক্তব্য রাখার সঙ্গে সঙ্গেই নজরুল মঞ্চে উপস্থিত তৃণমূল সমর্থিত প্রাথমিক শিক্ষকরা হাততালি দিতে থাকেন। শিক্ষিকাদের স্ত্রী-রোগ নিয়ে শিক্ষা মন্ত্রী এই ধরনের 'কুরুচিকর মন্তব্য' করার জন্য ভারতীয় জনতা পার্টির শিক্ষক সংগঠন বিজেপি টিচার্স সেলের পক্ষ থেকে তীব্র নিন্দা জানানো হয়। বিজেপি টিচার্স সেলের রাজ্য কনভেনার দিপল বিশ্বাস বলেন "রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রীর শিক্ষিকাদের প্রসঙ্গে এইধরনের কুরুচিকর মন্তব্য শুনে আমাদের মাথা হেঁট হয়ে যাচ্ছে। উনি নিজেও একজন মায়ের সন্তান। এইধরনের কুরুচিকর মন্তব্য উনি করেন কী করে?
ওনার প্রকাশ্যে এইধরনের কুরুচিকর মন্তব্য করার জন্য ক্ষমা চাওয়া উচিত।" বিজেপি টিচার্স সেলের প্রাথমিক শাখার রাজ্য কো-ইনচার্জ সব্যসাচী ঘোষ বলেন  "শিক্ষামন্ত্রী মহিলাদের সম্মান দিতে জানেন না, তাঁর শিক্ষামন্ত্রী পদে থাকার কোনো অধিকার নেই। রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রীর এইধরনের আচরণের জন্যই কলেজের অধ্যাপকরা তৃণমূলের নেতাদের দ্বারা প্রহৃত হচ্ছে, শিক্ষকদের ন্যায্য বেতনের দাবিতে রাস্তায় অনশন করতে হচ্ছে। আমরা বিজেপি টিচার্স সেলের পক্ষ থেকে উনার অবিলম্বে শিক্ষামন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ দাবি করছি।"
পাশাপাশি মুর্শিদাবাদের শিক্ষক নেতা তন্ময় ঘোষ বদলি প্রসঙ্গে শিক্ষামন্ত্রীর মন্তব্যের তীব্র নিন্দা করেছেন, তন্ময় বাবু বলেন "এতদিন জানতাম উনি শিক্ষামন্ত্রী হিসেবে ব্যর্থ ,আজ আবার 'স্ত্রীরোগ' প্রসঙ্গে মন্তব্য করে শিক্ষিকা দের চরমতম অপমান করেছেন,উনি স্ত্রী রোগ বিশেষজ্ঞ কবে থেকে হলেন !এই মন্তব্যে শিক্ষিকাদের সম্মানহানির হয়েছে...শিক্ষা মন্ত্রীর এই মন্তব্য উইথড্র করা উচিত। তন্ময় বাবু যোগ্যতার ভিত্তিতে তে বেতন প্রসঙ্গে বলেন- কেন্দ্রীয় নিয়মানুযায়ী নিয়োগ হলে কেন্দ্রীয় নিয়মানুযায়ী বেতন দেওয়া হবেনা কেন?মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মিটিং মিছিলে জনসভা বলেন_"এগিয়ে বাংলা"...বাংলা যদি এগিয়ে তবে বেতনে অন্য রাজ্যের তুলনায় পিছিয়ে কেন ?আর কোনো অজুহাত নয় ,অতিশিঘ্র PRT স্কেল চালু করতে হবে।"
Loading...

No comments

Theme images by enjoynz. Powered by Blogger.