শিক্ষকদের ওপর লাঠি চার্যের অভিযোগ! আবার অনশনে বসলেন রাজ্যের শিক্ষকরা।

নজরবন্দি ব্যুরোঃ কিছুদিন আগেই রাজ্যে ঝড় উঠেছিল শিক্ষকদের অনশন কে কেন্দ্র করে। সম্পূর্ন না হলেও কিছুটা দাবি আদায়ে সফল হয়েছিলেন রাজ্যের প্রাথমিক শিক্ষকরা। বিকাশ ভবনের অদূরে UUPTWA অরাজনৈতিক সংগঠনের ব্যানারে ১৪ দিন আমরন অনশনে ব্রতি হয়েছিলেন শিক্ষকরা।
তারপর একমাস অতিক্রান্ত হওয়ার আগেই আবার শিক্ষক আন্দোলনের মুখোমুখি রাজ্য। চুক্তিভিত্তিক প্রথা তুলে দিয়ে যোগ্যতা অনুযায়ী বেতনের দাবিতে আজ থেকে আমরন অনশনের ডাক দিলেন বৃত্তিমূলক শিক্ষক প্রশিক্ষক ও শিক্ষা কর্মচারীরা।
তাঁদের মূল দাবি,
১) চুক্তিভিত্তিক প্রথা তুলে দিয়ে যোগ্যতা অনুযায়ী বেতন কাঠামো গঠন করতে হবে সরকার কে।
২) প্রভিডেন্ড ফান্ড, রিটায়ার্ডমেন্ট বেনিফিট দিতে হবে।
৩) শিক্ষক এবং প্রশিক্ষক নিয়োগ।
৪) অন্যান্য শিক্ষকদের মতই ছুটি বরাদ্দ করতে হবে।
৫) প্রশিক্ষনের কোর্সগুলি৬ মাসের বদলে ১ বছরের করতে হবে।
অনশনকারী শিক্ষকদের অভিযোগ ২০১১ সালে পরিবর্তনের সরকার আসার পর থেকে ২৮০০ বৃত্তিমূওক প্রশিক্ষন স্কুলের শিক্ষক নিয়োগ থমকে রয়েছে। একাধিকবার দাবি জানানোর পর রাজ্য সরকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল SSC-র মত কোন নিয়োগ সংস্থার মাধ্যমে রাজ্যজুড়ে নিয়োগ করা হবে, কিন্তু তা হয়নি। মা মাটি মানুষের সরকার গঠনের পর ৮ বছর পেরিয়ে গেলেও নিয়োগ না হওয়ায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলি উঠে যেতে বসেছে। শিক্ষক না থাকায় ছাত্র হচ্ছে না। শিক্ষকদের অভিযোগ আগে যেখানে স্কুল পিছু উচ্চমাধ্যমিক স্তরে গড়ে ৫০ জন ছাত্রছাত্রী পড়ত এখন তা পৌঁছেচে বড়জোর ১০-এ।  পাশাপাশি বেতন সমস্যা হাহাকার তুলেছে।
প্রসঙ্গত, গতরাতে শিলিগুড়িতে দাবি আদায়ে ধর্নায় বসা বৃত্তিমূলক শিক্ষকদের পুলিশ নির্বিচারে লাঠিপেটা করেছে বলে অভিযোগ। অবস্থানকারীদের মধ্যে ৩৩ জন গত রাতেই গ্রেফতার হয়েছেন বলে খবর।কিন্তু শিক্ষকরা জানিয়ে দিয়েছেন যত বাঁধাই আসুক না কেন দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে  তাদের আন্দোলন। 
DESCRIPTION OF IMAGE
Loading...

No comments

Theme images by caracterdesign. Powered by Blogger.