বিপন্ন বাক স্বাধীনতা, বিপন্ন সংবিধান! খুনের হুমকি পরিচালক অনিকেত চট্টোপাধ্যায় কে।

নজরবন্দি ব্যুরো: সম্প্রতি ইসরো চেয়ারম্যান কে শিবন মন্দিরে গিয়েছিলেন। আর এই বিষয়ে চিত্র পরিচালক অনিকেত চট্টোপাধ্যায় নিজের ফেসবুক ওয়ালে মন্তব্য ছুঁড়ে দেন। চন্দ্রযান-২ অভিযানের প্রেক্ষিতে ইসরো চেয়ারম্যানের মন্দির যাওয়াকে ঘিরে চিত্র পরিচালক অনিকেত চট্টোপাধ্যায়ের করা ফেসবুক পোস্ট বিতর্কের সৃষ্টি করে দিল। এই পোস্ট করার পর অনিকেত চট্টোপাধ্যায়ের অভিযোগ তার ব্যক্তিগত মোবাইল এর হোয়াটস অয়্যাপে 'প্রাণে মেরে ফেলার' হুমকি ফোন আসছে। সঙ্গে চলছে অকথ্য অশ্লীল ভাষায় গালাগালি।ইতিমধ্যেই অনিকেত চট্টোপাধ্যায় পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেছেন। প্রসঙ্গত,ইসরো চেয়ারম্যানের মন্দিরে যাওয়া নিয়ে চিত্র পরিচালক অনিকেত চট্টোপাধ্যায় নিজের ফেসবুক ওয়ালে পোস্ট করেন।
 সেখানে তাঁর মূল বক্তব্য ছিল, “সংবিধান স্বীকৃত ধর্মনিরপেক্ষ দেশের কোনও নাগরিকের অধিকার থাকতে পারেনা দেশের কোনও প্রকল্পকে একটা ধর্মের সঙ্গে জুড়ে দেখানোর। তাহলে কি দাঁড়ালো? চন্দ্রযান-২ যদি ১০০ শতাংশ সফল হতো তাহলেও আমি যা বলেছি তাই বলতাম। আমার পোস্টের সঙ্গে এই অভিযানের সফলতা বা ব্যর্থতার কোনও সম্পর্ক নেই। এখানেই থেমে না থেকে তিনি এও লিখেছেন, কোনও বৈজ্ঞানিক যদি বৈজ্ঞানিক যদি বৈঞ্জানিক পরীক্ষা নিরীক্ষার সফলতা কামনা করে মন্দিরে বা মসজিদে বা চার্চে যান তাহলে তাকে আমি বৈজ্ঞানিক বলে মনে করি না। তিনি ছোটবেলায় কৃষক ছিলেন না মুচি তা জেনে আমার মত বদলাবে না। এই পোস্ট করার পরেই বিতর্ক দেখা দিয়েছে। নেটিজেনরা সমালোচনায় সরব হয়ে উঠেছে। এসেছে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি। সঙ্গে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ। এখন দেখার এই বিতর্কের জল শেষ পর্যন্ত কোন দিকে গড়ায়।
Loading...

No comments

Theme images by caracterdesign. Powered by Blogger.