এখনো রয়েছে আশার আলো। জানালেন ইসরোর প্রাক্তন ডিরেক্টর ডি শশীকুমার।

নজরবন্দি ব্যুরোঃ এখনও রয়েছে আশার আলো।সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়েছে কিন্তু আশা এখন শেষ হয়ে যায়নি।এমনটাই মনে করেন ইসরোর প্রাক্তন ডিরেক্টর ডি শশীকুমার। তিনি বলেন “চন্দ্রযান-২ অভিযানকে এখনই অসফল বলা যাবে না। ‌যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার আগের মুহূর্তের তথ্য পরীক্ষা করা হবে। দেখা হবে বিক্রমের ক্র্যাশ ল্যান্ডিং হয়েছে নাকি সেটা নির্ধারিত নিয়ম মেনেই চাঁদে অবতরণ করেছে। আমার মনে হয় না বিক্রম ভেঙে পড়েছে। কারণ অরবিটার এবং ল্যান্ডারের কমিউনিকেশন চ্যানেল এখনও অন রয়েছে। এটা অন থাকা প্রয়োজন। এখন আমাদের এই তথ্যগুলো পরীক্ষার ফলাফলের জন্য অপেক্ষা করতে হবে।
 তারপরই পুরো চিত্রটা পরিস্কার হয়ে যাবে”। কাল ভোর রাতে চাঁদে নামার আগেই নিরুদ্দেশ হয়ে যায় চন্দ্রযান ২ ল্যান্ডার। ল্যান্ডার বিক্রমের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় বলে জানিয়ে দেন ইসরোর চেয়ারম্যান। গতি কমিয়ে চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে অবতরণের ২.১ কিমি আগেই বিক্রমের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়। ইসরোর তরফে জানানো হয়েছে যে মিশনের ৫ শতাংশ প্রভাবিত হয়েছে।৯৫ শতাংশ কাজ করছে। ৫ শতাংশে ল্যান্ডার বিক্রম ও রোভার প্রজ্ঞানের সঙ্গে যোগাযোগ বিছিন্ন হয়ে গিয়েছে। চাঁদের জমিতে ঘুরে ঘুরে তথ্য আরও পাওয়া যাবে না। কিন্তু বাকি ৯৫ শতাংশ যা অ্যাক্টিভ রয়েছে তা থেকে অন্যরকমের তথ্য পাওয়া যাবে।
Loading...

No comments

Theme images by caracterdesign. Powered by Blogger.