১ জানুয়ারি থেকে কার্যকর হচ্ছে ষষ্ঠ পে কমিশন; কতটা বাড়ছে বেতন? #Exclusive

নজরবন্দি ব্যুরোঃ বকেয়া রয়েছে বিরাট পরিমাণ মহার্ঘ ভাতা। এর ওপর রয়েছে চোখরাঙানি। প্রতিহিংসার বদলি। রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের বেতন সংক্রান্ত অবস্থার কোনও পরিবর্তন ২০১১ সালের পর আর হয়নি। মহার্ঘভাতার দাবি নিয়ে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর কাছে বহুবার দরবার করে কোনও লাভ না হওয়ায় কর্মচারীরা আদালতে গেছেন। কর্মচারীদের মহার্ঘভাতা দেওয়ার ব্যাপারে আদালতের নির্দেশ কার্যকরী করতেও রাজ্য সরকারের কোনও সদিচ্ছাও অমিল৷
আর এই নিয়ে ক্ছেরমাগত বেড়েছে ক্ষোভ, যা প্রতিফলিত হয়েছে ২০১৯ লোকসভার ভোটবাক্সে।
 ১৯৭৭ সালে বাম সরকারের আমলে পাঁচটি বেতন কমিশন করা হয়৷ তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্য সরকার ষষ্ঠ বেতন কমিশন তৈরি করে! কিন্তু একাধিকা বার পেছতে থাকে বেতন কমিশনের মেয়াদ। ষষ্ঠ বেতন কমিশন চালু না হওয়ায় ইতিমধ্যেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারকে বেশ কয়েক বার খোঁচা দিয়েছেন নরেন্দ্র মোদি৷ বিজেপি ক্ষমতায় এলে সপ্তম বেতন কমিশন কার্যকর করার আশ্বাসও দিয়েছেন নমো৷
 অবশেষে দীর্ঘ টাল বাহানার পর মমতা বন্দোপাধ্যায়ের সরকার চালু করতে চলেছে ষষ্ঠ বেতন কমিশন।  আজ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়ে দিয়েছেন ষষ্ঠ বেতন কমিশন কবে থেকে কার্যকর হচ্ছে। বেসিক সেলারি বাড়বে ২.৫৭ শতাংশ। ন্যূনতম বেসিক হবে ১৭৯৯০ টাকার৷ আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই বিষয়ে আলোচনা করে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে ৷ পয়লা জানুয়ারি ২০২০ থেকে নতুন পে কমিশন কার্যকর করা হবে বলে প্রত্যাশা রয়েছে রাজ্য সরকারের।
পাশাপাশি দলীয় সংগঠনের সভায় এদিন মুখ্যমন্ত্রী জানিয়ে দেন স্টেট পে কমিশন রিপোর্ট সাবমিট করলে ডিএ নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। আপাতত পে কমিশনের প্রথম রিপোর্ট তিনি পড়েছেন এবং তারপরেই সিদ্ধান্ত হয়েছে ১লা জানুয়ারি ২০২০ থেকে ষষ্ঠ পে কমিশন চালু করার। অন্যদিকে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন সরকারি কর্মীদের গ্রেচুয়িটি  লক্ষ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১০ লক্ষ টাকা করা হচ্ছে। 
Loading...

No comments

Theme images by caracterdesign. Powered by Blogger.