Header Ads

শিক্ষক খুনের কিনারা চাই! ২৪ ঘন্টা সময় দেওয়া হল এসপি কে।

নজরবন্দি ব্যুরোঃ বিজয়া দশমীর দিন সপরিবারে খুন হন শিক্ষক বন্ধুপ্রকাশ পাল, তাঁর অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী বিউটি পাল এবং তাদের ৫ বছরের একমাত্র সন্তান অঙ্গন। শিক্ষক মহলে এই চাঞ্চল্যকর ঘটনায় তীব্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়। শিক্ষক পরিবার হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে ঐক্যবদ্ধ হয় শিক্ষক সমাজ।

শিক্ষক বন্ধুপ্রকাশ পাল, তাঁর অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী বিউটি পাল এবং তাদের ৫ বছরের একমাত্র সন্তান অঙ্গনকে পাশবিক ভাবে কুপিয়ে খুনের ঘটনার প্রতিবাদে স্থানীয়দের একত্রিত করে এদিন শিক্ষক ঐক্য মুক্ত মঞ্চ তীব্র প্রতিবাদ মিছিল সংগঠিত করে। পুলিশি বাঁধা উপেক্ষা করে মুর্শিদাবাদের জিয়াগঞ্জ বাজার অবরোধ করা হয়, পাশাপাশি জিয়াগঞ্জ থানার সামনে চলে অবস্থান বিক্ষোভ। খুনি বা খুনিদের দ্রুত গ্রেফতারির দাবীতে সরব হন তাঁরা।
পরে শিক্ষক ঐক্য মুক্ত মঞ্চের প্রতিনিধিদের সাথে বৈঠক করেন জেলা পুলিশ সুপার। তিনি প্রতিনিধিদের প্রতিশ্রুতি দেন দ্রুত গ্রেফতার করা হবে খুনিদের।

শিক্ষক ঐক্য মুক্ত মঞ্চের রাজ্য সম্পাদক মইদুল ইসলাম জানান, আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে পুলিশ যদি দোষীদের গ্রেফতার না করে তাহলে চরম আন্দোলনে নামবে শিক্ষক ঐক্য মুক্ত মঞ্চ।
উল্লেখ্য, মুর্শিদাবাদের জিয়াগঞ্জ থানার কানাইগঞ্জ লেবুবাগান এলাকার বাসিন্দা শিক্ষক বন্ধুপ্রকাশ পাল, তাঁর অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী বিউটি পাল এবং তাদের ৫ বছরের একমাত্র সন্তান অঙ্গন খুন হন দশমীর দিন। বেলা ১২টা নাগাদ পুলিস এসে বাড়ির ভিতর থেকে তিনজনের রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার করে।
শিক্ষক পরিবারকে নৃশংস ভাবে হত্যা করার ঘটনার ২দিন পেরিয়ে গেলেও এখনো কেন খুনিদের ধরতে তৎপরতা দেখাচ্ছে না পুলিশ তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন মুর্শিদাবাদের শিক্ষক নেতা তন্ময় ঘোষ, তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছেন রাজ্যে এতবড় একটা ঘটনা ঘটে গেল অথচ ক্ষমতাসীন ও বিরোধীদলের কোনো নেতা মন্ত্রীর কোনো প্রতিবাদ তো দূরের কথা -সামান্য বিবৃতিও চোখে পড়ল না ! বিদ্যজনেরা মুখে কুলুপ এঁটে আছেন কেন? রাজ্যপাল ছাড়া সবাই চুপ কেন?মুখ্যমন্ত্রীর মানবিক সত্মা কোথায় গেল?মুখ্যমন্ত্রীর এমন নীরবতা বাংলার মানুষকে হতাশ করেছে! দোষীদের অবিলম্বে গ্রেফতার জন্য তন্ময় বাবু মুখ্যমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবি করেছেন
Loading...

1 টি মন্তব্য:

lishenjun থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.