Header Ads

কিভাবে জনগণের সঙ্গে ব্যবহার করবেন সিভিক ভলেন্টিয়ার? এবার তারই ব্যবস্থা করলো লালবাজার।

নজরবন্দি ব্যুরোঃ ২০১১ সালে মমতার সরকার আসার পর সিভিক ভলেন্টিয়ার নিয়োগ করা হয় রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায়। এর ফলে কিছু বেকার ছেলে মেয়ে কাজ পায়। এটা তো গেল ভালো দিক। এখন প্রশ্ন হচ্ছে এরা সকলেই কি এই কাজের জন্য যোগ্য। যেকোন কাজের ক্ষেত্রে যোগ্যতা বলতে ব্যবহারটাও দেখা হয়। কিন্তু প্রতিদিন পথচারীদের সাথে সিভিক ভলেন্টিয়ারদের অপব্যবহার এর কথা সামনে আসে। দক্ষিণ কলকাতার একাটি রাস্তায় গাড়ি রেখেছিলেন এক ব্যক্তি। কেন তিনি ওই রাস্তায় গাড়ি রেখেছিলেন তা নিয়ে বচসার সৃষ্টি হয় গাড়ির চালক ও সিভিক ভলেন্টিয়ারের মধ্যে। সিভিক ভলেন্টিয়ারের দুর্ব্যবহার এর অভিযোগও হয় লালবাজার এর কর্তাদের কাছে।
 সিভিক ভলেন্টিয়ারদের এই রকম আচরণ আর তার অভিযোগ কোনটাই নতুন নয়। বাহিনীর একাংশ মনে করেন এই আচরণ পুলিশের সন্মান নষ্ট করছে। এই সমস্যার সমাধান হয়া উচিত। এই সমস্যার সমাধানের জন্য ট্রাফিক পুলিশে কর্মরত সিভিক ভলেন্টিয়ারদের আচরণ বিধি শেখানোর জন্য ব্যবস্থা করলো লালবাজার ট্রাফিক বিভাগ। আজ থেকে কলকাতা পুলিশ ট্রেনিং স্কুলে তাদের প্রশিক্ষণ শুরু হয়েছে। সিভিক ভলেন্টিয়ারদের সংখ্যা ২০০০। প্রশিক্ষণ পর্ব চলবে একমাসের বেশি সময় ধরে। প্রতিদিন ১০০ জন সিভিক ভলেন্টিয়ার কে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।
তাদের প্রশিক্ষণ দেবেন পুলিশের ডিসি সহ শীর্ষ কর্তারা। নিয়ম, কলকাতা পুলিশের ট্রাফিক বিভাগে যোগ দেওয়ার আগে সিভিক ভলেন্টিয়ারদের "বেসিক অ্যান্ড ট্রাফিক ট্রানিং" এর কোর্স করতে হয়। আইন থেকে শুরু করে ট্রাফিক ম্যানেজমেন্টের শিক্ষা দেওয়া হয়। এই প্রশিক্ষণে তাদের এই সমস্ত বিষয় শিক্ষা দেওয়া হবে, সাথে পথচারীদের সাথে কি ভাবে আচরণ করা উচিত, কোন পরিস্থিতি কি ভাবে সামাল দেবে তারা সেই বিষয়েও প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।
Loading...

No comments

Theme images by enjoynz. Powered by Blogger.