Header Ads

জম্মু-কাশ্মীরের নতুন মানচিত্র প্রকাশ করলো ভারত। আপত্তি পাকিস্তানের।

নজরবন্দি ব্যুরোঃ ৫ আগষ্ট ২০১৯, মোদি সরকার জম্মু-কাশ্মীর থেকে ধারা ৩৭৫ এবং ৩৫ এ তুলে নেয়। তারপর থেকে রাজনৈতিক নানা মহলে বিতর্ক তৈরী হয়। কোনো রাজনৈতিক দল এই সিদ্ধান্ত মেনে নেয়নি। ধারা বিলুপ্ত করার ঠিক তিন মাস পরে জম্মু-কাশ্মীর কে জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখ দুটি আলাদা আলাদা কেন্দ্রশাসিত রাজ্য করা হল। এই সিদ্ধান্তে লাদাক বাসিরা খুশি হলেও জম্মু-কাশ্মীরের এক অংশ খুশি নয়। আর রাজনৈতিক মহলের এক অংশ এই নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছে। পাকিস্তান সরকার ও এই সিদ্ধান্তে অসন্তুষ্ট। গতকালই নতুন মানচিত্র প্রকাশ করেছে ভারত। সার্ভে জেনারেল অফ ইন্ডিয়া এই মানচিত্র তৈরী করেছেন। এই মানচিত্রে জম্মু-কাশ্মীর কে ভেঙ্গে জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখ দুটি আলাদা কেন্দ্রশাসিত রাজ্য হিসাবে দেখানো হয়েছে।
 এই মানচিত্রে লাদাখ কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের মধ্যে রয়েছে পাক অধিকৃত কাশ্মীর। আর এই বিষয়ে আপত্তি প্রকাশ করেছে পাকিস্তান। পাকিস্তানের দাবি কাশ্মীর তাদের দেওয়া হোক। কাশ্মীর কোন দেশের অধিকৃত থাকবে এই বিবাদ শুরু থেকেই। এবার নতুন মানচিত্র অনুযায়ী পাক অধিকৃত কাশ্মীরও ভারতের। পাক অধিকৃত কাশ্মীর কে ভারতের মানচিত্রে অন্তর্ভুক্ত করায় ক্ষোভ উপরে দেয় পাকিস্তান। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান এই বিষয় নিয়ে ট্যুইটারে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেন; মানচিত্র অসাংবিধানিক ও অসমর্থনযোগ্য, এই মানচিত্র ভুল, আইনত অসমর্থনযোগ্য ও অকার্যকর একটি মানচিত্র। এই মানচিত্র প্রাকাশ করে ভারত জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের রেজুলেশন ভঙ্গ করেছে বলে অভিযোগ আনেন তিনি।
Loading...

No comments

Theme images by enjoynz. Powered by Blogger.