Header Ads

হাসিনা সরকারের আমলে সংখ্যালঘুরা নির্যাতিত নয় বাংলাদেশে, জানাল ভারতের বিদেশ মন্ত্রক

নজরবন্দি ব্যুরোঃ ভারতের বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র রবিশ কুমার এবার বাংলাদেশ নিয়ে চাঞ্চল্যকর মন্তব্য করলেন। রবীশ কুমার জানান, বর্তমান সরকারের সংখ্যালঘুরা অত্যাচারিত একথা ভারত বলেনি। কেবল বাংলাদেশের সংখ্যালঘুদের ক্ষেত্রে সেনা শাসন এবং পূর্ববর্তী সরকারের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়েছে মাত্র। সংবিধান মেনে সংখ্যালঘুদের উন্নীত করার চেষ্টা করছে বর্তমান বাংলাদেশের হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার। নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পাস করার সময় প্রতিবেশী দেশগুলিতে সংখ্যালঘুদের উপর নির্যাতন নিয়ে কড়া ভাষায় বলেছিলেন ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। বাংলাদেশে শেখ মুজিবুর রহমান প্রধানমন্ত্রী থাকাকালীন সংখ্যালঘুদের সামাজিক নিরাপত্তা সুরক্ষিত ছিল।
কিন্তু পরবর্তীকালে তা ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠে বলে অভিযোগ তোলেন অমিত শাহ। তবে এপ্রসঙ্গে বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রী আবদুল মোমেনের দাবি, বাংলাদেশে সংখ্যালঘু নিপীড়িনের খবর ভুয়ো। হাসিনা সরকারের আমলে এই অভিযোগ করাই ভিত্তিহীন। সরকারের বিভিন্ন বড়বড় পদে সংখ্যালঘুরা রয়েছেন। তাঁর অভিযোগ, ভারত সহিষ্ণুতার দেশ বলে পরিচিত। ভবিষ্যতে এই জায়গা থেকে সরে এলে দু’দেশের সম্পর্কে ফাটল ধরতে পারে বলে জানিয়েছেন তিনি। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য , তিন দিনের সফরে বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টা নাগাদ দিল্লিতে আসার কথাছিল বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রী একে আবদুল মোমেনের। তবে এই সফর বাতিল করেন। বাতিলের কারণ যদিও সরকারি ভাবে জানানো হয়নি। বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রী ভারত সফর বাতিল করার পরই ভারতীয় বিদেশ মন্ত্রকের তরফে সংখ্যালঘুদের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ হাসিনা সরকারের ইতিবাচক সমালোচনা তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছেন আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিশেষজ্ঞরা।
Loading...

No comments

Theme images by lishenjun. Powered by Blogger.