Header Ads

সুন্দরবনে বাংলাদেশী জলদস্যুদের গুলিতে জখম ভারতীয় মৎস্যজীবী

নজরবন্দি ব্যুরোঃ ভারত বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক জলসীমানার কাছে ভারতীয় ভূখণ্ডের মধ্যে জলদস্যুদের ছোঁড়া গুলিতে জখম হয়েছেন এক মৎস্যজীবী। বৃহস্পতিবার ভোরে ঘটনাটি ঘটেছে সুন্দরবনের কেঁদোদ্বীপেরদের কাছে। গুরুতর জখম অবস্থায় ওই মৎস্যজীবী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। জখম মৎস্যজীবী নিরঞ্জন দাস(৪২) কাকদ্বীপের তিলকচন্দ্রপুরের বাসিন্দা। স্থানীয় ও মৎস্যজীবী সূত্রে জানা গিয়েছে বুধবার বিকেলে পাথরপ্রতিমা থেকে এফবিবাবারুদ্রজ্যোতি ট্রলারে করে প্রায় ১৩ জন মৎস্যজীবী মাছ ধরার জন্য রওনা দিয়েছিলেন। বৃহস্পতিবার ভোর ৪.৩০ নাগাদ মৎস্যজীবীরা সুন্দরবনের কেঁদোদ্বীপের কাছে মাছ ধরছিলেন। অভিযোগ, সেই সময়ই বাংলাদেশ থেকে জলসিমানা অতিক্রম করে ভারতীয় ভূখণ্ডে ঢুকে পড়ে একটি জলদস্যুদের ট্রলার।
অভিযোগ মৎস্যজীবীদের ট্রলার লক্ষ্য করে লাগাতার গুলি চালাতে থাকে জলদস্যুরা। মৎস্যজীবীদের ট্রলারের উপরে বসে ছিলেন নিরঞ্জন দাস। তাঁর ডান পায়ে গুলি লাগে। এরপরই মৎস্যজীবীরা ট্রলার নিয়ে পাথরপ্রতিমার ঘাটে ফিরে আসেন। ট্রলারের অন্য মৎস্যজীবীরা জখম নিরঞ্জনকে নিয়ে যান কাকদ্বীপ মহকুমা হাসপাতালে। সেখানেই শুরু হয় চিকিৎসা। কিন্তু তাঁর অবস্থার অবনতি হওয়ায় পরে ডায়মন্ড হারবার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। এই ঘটনার জেরে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন সুন্দরবনের মৎস্যজীবীরা। মৎস্যজীবীদের নিরাপত্তানিয়ে প্রশ্নতুলেছে সুন্দরবনের মৎস্যজীবী সংগঠন গুলি। কাকদ্বীপ ফিসারম্যান ওয়েলফেয়ার এ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে মৎস্যদপ্তর ও উপকূলরক্ষী বাহিনীর কাছে বিষয়টি জানানো হচ্ছে। তবে আন্তর্জাতিক জল সীমানা ভেদ করে কিভাবে জলদস্যুরা ভারতীয় ভূখণ্ডের মধ্যে ঢুকে এমন কাণ্ড ঘটাল তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন।
Loading...

No comments

Theme images by lishenjun. Powered by Blogger.