Header Ads

এরিয়া সহ বেতনবৃদ্ধির অর্ডার; দীর্ঘ আন্দোলনের ফসল পাচ্ছেন শিক্ষক-শিক্ষিকারা। #Exclusive

নজরবন্দি ব্যুরোঃ শিক্ষক আন্দোলনের বড় সাফল্য। অবশেষে মিলল সরকারি ছাড়পত্র। রাজ্যে গত বছরকয়েক ধরে একাধিক স্তরের শিক্ষকরা নিজেদের বঞ্চনার বিরুদ্ধে লড়াই করছেন, কোথাও দাবি সম্মানের কোথাও আবার যোগ্যতা অনুযায়ী বেতনের।
প্রাথমিকে যোগ্যতা অনুযায়ী বেতন অর্থাৎ পিআরটি স্কেলের দাবিতে আন্দোলন করেছে একাধিক সংগঠন, গ্র্যাজুয়েট স্তরের শিক্ষকরা লড়াই করছেন টিজিটি স্কেলের জন্যে পাশাপাশি এসএসকে, এমএসকে, এএস এবং পার্শ্ব শিক্ষকরা লড়াই করছেন সম্মান ও সঠিক বেতনের জন্যে।এনআরসি চান অথবা চাননা? পড়ুন স্পেশাল আর্টিক্যালঃ NRC কি অমানবিক, এক্ষুনি চান NRC হোক? জানুন অজানা এই দিকগুলি।
হচ্ছে ধারাবাহিক ভাবে ধর্না, অনশন আন্দোলন। আর এক মধ্যেই একটি স্তরের শিক্ষকরা শিক্ষক নেতা মইদুল ইসলামের নেতৃত্বে আন্দোলনের পর সাফল্যের মুখ দেখলেন।
শিক্ষক ঐক্য মুক্ত মঞ্চের দীর্ঘ ৩ মাসের ধারাবাহিক লড়াই আন্দোলন পর পর ২ বার ১৪ দিনের ধর্ণা, বিকাশভবন অভিযান, বিধানসভা অভিযান ১৪৪ জন শিক্ষিকার গ্রেপ্তারের ফলে গত ২৯ শে জুলাই শিক্ষাদপ্তরের অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী ও মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণা মতে দীর্ঘ ৮ বছর পরে পঞ্চায়েতের শিশুশিক্ষাকেন্দ্র ও মাধ্যমিক শিক্ষাকেন্দ্রের শিক্ষক শিক্ষিকাদের বেতনবৃদ্ধির অর্ডার হলো৷
২০১৯ সালের ১লা এপ্লিল থেকে এরিয়াসহ এমাসেই বর্ধিত বেতন তারা হাতে পাবেন৷ আন্দোলনের ফলে এবছরই তারা জীবনের প্রথমবার বোনাস পেয়েছেন৷ মাদ্রাসা ও পৌরসভার শিক্ষক শিক্ষিকা ও সমহারে দ্রুত বেতন পাবে৷ এবং অন্যান্য সুবিধাসহ পঞ্চায়েত ও পৌরদপ্তর থেকে শিক্ষাদপ্তরে দ্রুত অন্তর্ভুক্তিকরনের বিজ্ঞপ্তি এমাসেই প্রকাশিত হবে৷


Loading...

No comments

Theme images by enjoynz. Powered by Blogger.