Header Ads

SSC নিয়োগ নিয়ে চরম দুর্নীতি, কমিশনকে রিপোর্ট তলব হাইকোর্টের।

নজরবন্দি ব্যুরো: ২০১৬ সালে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে ওয়েটিং লিস্টে থাকা প্রার্থীদের কাউন্সেলিং প্রক্রিয়া ঘিরে মামলা কলকাতা হাইকোর্টে। এই মামলাতেই বিচারপতি রাজর্ষি ভরদ্বাজ স্কুল সার্ভিস কমিশনের কাছে রিপোর্ট তলব করেছে। আদালতের নির্দেশ, পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট ১৬ ডিসেম্বরের মধ্যে হাইকোর্টে জমা দিতে হবে। ১৯ জন মামলাকারি চাকরীপ্রার্থীর অভিযোগ, তারা বেশি নম্বর পাওয়া সত্ত্বেও স্কুল সার্ভিস কমিশন তাদের কাউন্সেলিং বিলম্বে ডেকেছে।
ফলে বেশি নম্বর পাওয়া সত্ত্বেও সুবিধা জনক জায়গায় পোস্টিং থেকে বঞ্চিত হতে হয়েছে। অথচ কম নম্বর পেয়েছে এমন চাকরীপ্রার্থীদের আগে ডাকা হয়েছে কাউন্সেলিং এর সময়ে। এভাবে বাড়তি সুযোগ দেওয়া হয়েছে। এমনই অভিযোগ মামলাকারি চাকরীপ্রার্থীদের। কেন এই বঞ্চনা তাদের প্রতি? এই সমস্ত অভিযোগের প্রেক্ষিতে হাইকোর্টে মামলা কমিশনের বিরুদ্ধে। এই মামলার শুনানিতে হাইকোর্ট স্কুল সার্ভিস কমিশনের কাছে জানতে চেয়েছে কম নম্বর পাওয়া সত্ত্বেও কোন কোন প্রার্থীকে নিয়োগপত্র দেওয়া হয়েছে? কোন পদ্ধতিতে এই নিয়োগপত্র দেওয়া হয়েছে?
জানতে চেয়ে কমিশনকে নির্দেশ দিয়েছে আদালত। কলকাতা হাইকোর্ট কমিশনের কাউন্সেলিং বিষয় নিয়ে পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট চেয়েছে। মেধা তালিকায় প্রথম দিকে নাম থাকলেও নীচের দিকে থাকা প্রার্থীদের স্কুল সার্ভিস কমিশন কাউন্সেলিং-এ আগে সুযোগ দিয়েছে। অথচ পরীক্ষা দিয়ে যোগ্যতা অর্জন করেও মেধা তালিকায় প্রথম দিকে নাম থাকার পরেও সুযোগ থেকে বঞ্চিত হতে হয়েছে। কেন এই বঞ্চনা? এই প্রশ্নেই ১৯ মামলাকারী চাকরী প্রার্থীর আবেদনের শুনানিতে হাইকোর্ট স্কুল সার্ভিস কমিশনের কাউন্সেলিং বিষয় নিয়ে ব্যাখা চেয়েছে, পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট সহ। কলকাতা হাইকোর্টের এই নির্দেশের ফলে স্বভাবতই অস্বস্তিতে স্কুল সার্ভিস কমিশন।
Loading...

No comments

Theme images by enjoynz. Powered by Blogger.