Header Ads

গার্গী কলেজ কাণ্ডে উপাচার্যের অপসারণের দাবিতে বিক্ষোভ ছাত্রীদের

নজরবন্দি ব্যুরোঃ কলেজে চলছিল সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সেই সময়ই কলেজের সামনে থেকে যাচ্ছিল সিএএ–এর সমর্থনে একটি মিছিল। আচমকা সেই মিছিল থেকে বেশ কয়েকজন ব্যক্তি ঢুকে পড়ে কলেজের মধ্যে। এরপর ওই বহিরাগতরা কলেজের মধ্যে তাণ্ডব চালায়। ছাত্রীদেরকে চরম হেনস্থা করা হয় বলে অভিযোগ। ছাত্রীদের সামনেই হস্তমৈথুনের অভিযোগ ওঠে বহিরাগতদের বিরুদ্ধে। বাধ্য হয়েই আতঙ্কিত হয়ে কলেজ ছাড়তে বাধ্য হন ছাত্রীরা।
গত ৬ ফেব্রুয়ারি ঘটনাটি ঘটেছিল দিল্লির গার্গী কলেজে। ঘটনার পর বিষয়টি নিয়ে কলেজ কর্তৃপক্ষকে জানানো হলেও কোন সদুত্তর মেলেনি বলে ছাত্রীদের অভিযোগ। এমনকি উপাচার্যও কোন ব্যবস্থা না নেওয়ায় সোমবার ক্লাস বয়কট করে বিক্ষোভ শুরু করলেন ছাত্রীরা। অভিযুক্তদের শাস্তির পাশাপাশি উপাচার্যের অপসারণের দাবিতেই শুরু হয় বিক্ষোভ। এই আন্দোলন বিক্ষোভের জেরে উত্তাল পরিস্থিতি তৈরি হয় গার্গী কলেজে।
খবর পেয়েই জাতীয় মহিলা কমিশনের একটি প্রতিনিধি দল কলেজে এসে ছাত্রীদের সঙ্গে কথা বলেন। কেজরিওয়ালও বিষয়টি অত্যন্ত নিন্দনীয় বলেই জানিয়েছেন। তিনিও বহিরাগত তাণ্ডবকারীদের শাস্তির দাবি জানিয়েছেন। ইতিমধ্যেই স্বতঃপ্রণোদিত মামলা দায়ের করে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে দিল্লি পুলিশ। সেই সঙ্গে কলেজের সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখছে পুলিশ।
Loading...

No comments

Theme images by lishenjun. Powered by Blogger.