Header Ads

২০২০-২১ আর্থিক বর্ষে সরকারি কর্মচারীরা কোন ডিএ পাবেন না! কেন? পড়ুন

নজরবন্দি ব্যুরো: ডিএ নিয়ে বিতর্কের মধ্যে রাজ্যের অবস্থান এদিন স্পষ্ট করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, "বেতন কমিশনের সুপারিশ ইতিমধ্যে কার্যকর করা হয়েছে।
বাকিটা সুপারিশেই উল্লেখ করা হয়েছে। যতটুকু আমরা পারছি, তা দেওয়া চেষ্টা হয়েছে। নেতিবাচক চিন্তা করবেন না, রাজ্যের কথা একবার ভেবে দেখুন, ইতিবাচক চিন্তা করুন।" এর পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রী বিধানসভায় দাঁড়িয়ে তিনি আরও বলেছেন, আগে ৯০ শতাংশ মহার্ঘ ভাতা বকেয়া ছিল। সব মিটিয়ে দেওয়া হয়েছে। এখন রাজ্যে ষষ্ঠ বেতন কমিশন চালু হয়েছে। বর্ধিত বেতনও পেয়েছেন কর্মচারীরা। টাকা নেই, তাও আস্তে আস্তে সব দিয়ে দেব। মুখ্যমন্ত্রীর এই বক্তব্যের পরে সরকারি কর্মচারী মহলে ইতিমধ্য প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।

এবারের রাজ্য বাজেটের ১৩ নম্বর পাবলিকেশনের অন্তর্ভুক্ত ১৪ নম্বর ডিমান্ডে আছে  স্কুল এডুকেশন। ওই নথির ১৯০ পাতায় একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয় আছে বলে জানা  গিয়েছে। এখানে স্পষ্ট ভাবে বলা আছে ২০২১ সালের মার্চ মাস পর্যন্ত কোন রকম ডিএ-র প্রভিশন সরকারি কর্মচারীদের জন্য বলা নেই। অর্থাৎ , ডিএ খাতে এক টাকাও বরাদ্দ করা হয় নি এবারের বাজেটে।
স্যাটে যতই মামলা হোক, সরকার আগেই ঠিক করে রেখেছে যে  ২০২০-২১ আর্থিক বর্ষে সরকারি কর্মচারীরা কোন ডিএ পাবে না । তাই বাজেটে তার জন্য কোনও বরাদ্দও নেই। আর এই খবর জানাজানি হবার পর থেকে সরকারি কর্মচারীদের মধ্যে তৈরি হয়েছে ক্ষোভ। 
Loading...

No comments

Theme images by lishenjun. Powered by Blogger.