Header Ads

নিউজিল্যান্ডে প্রথম ধাক্কা বিরাট সেনাকে। টেলরের শতরানে ৪ উইকেটে জিতল কিউইরা

নজরবন্দি ব্যুরোঃ সাড়ে তিনশোর কাছাকাছি লক্ষ্যমাত্রা দিয়েও ম্যাচ জিততে ব্যর্থ ভারতীয় দল। ব্যাটসম্যানদের গড়ে দেওয়া মঞ্চে আস্থা হয়ে উঠতে পারলেন না ভারতীয় বোলাররা। ভারতীয় ইনিংসে এক ব্যাটসম্যান সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন। অন্যজন ৮৮ রানে অপরাজিত থেকে দলকে পাহাড় প্রমাণ রানে পৌঁছে দিয়েছেন। তা সত্ত্বেও ১১ বল বাকি থাকতেই ম্যাচ জিতল নিউজিল্যান্ড। টেলরের অপরাজিত শতরানের ইনিংসের জন্য নিউজিল্যান্ডের জয় এদিন সুগম হয়ে যায়। ৮৪ বলে ১০৯ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি। পরপর দু'টি উইকেট হারানোর ধাক্কার পর শ্রেয়স আইয়ার ও অধিনায়ক বিরাট কোহলি সামলেছিলেন। দলের স্কোরকার্ড এগোনোর সঙ্গে সঙ্গে করছিলেন ইনিংস বিল্ডিং। ৬৩ বলে ৫১ রান করে অবশ্য আউট হয়ে যান তিনি।
এদিন তাঁর ইনিংসে সহজাত ব্যাটিং থাকলেও ধামাকা ছিল না। তাঁর ইনিংস সাজানো ৬ টি চার দিয়ে।তবে তাঁকে সোধি বোল্ড করে দেন ।ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের আগে থেকেই চার নম্বর জায়গা নিয়ে সমস্যায় ভুগছিল ভারত। একাধিক ব্যাটসম্যানকে এই পজিশনে নামিয়ে চলেছে পরীক্ষা-নিরীক্ষা। তবে শ্রেয়সই যে সে শূন্যস্থান পূরণ করে দিলেন, তাতে আর কোনও সন্দেহ রইল না। ওয়ানডে-তে এদিনই অভিষেক হয় দুই ওপেনার পৃথ্বী শ ও (২০) মায়াঙ্ক আগরওয়াল (৩২)। ওপর দিকে ৩৪৮ রানের টার্গেট নিয়ে খেলতে নেমে দুরন্ত শুরু করেন গাপটিল ও নিকোলস। ওপেনিং জুটি খেলার গতি তৈরি করে দেয়। গাপতিল ৩২ রানে ফেরার পর ৯ রান করে দ্রুত ফেরেন ব্লানডেল। এরপর টেলর ও নিকোলসের জুটি জমে যায়। নিকোলস ফেরেন ৭৮ রান করে। জুটি বাঁধেন টেলর ও নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক টম লাথাম। ২ জনেই কার্যত খেলাটিকে জয়ের কাছে টেনে নিয়ে যান।
Loading...

No comments

Theme images by lishenjun. Powered by Blogger.