Header Ads

রোহিঙ্গাদের নিরাপদে মায়ানমারে ফেরাতে হাত মেলাল ভারত-বাংলাদেশ

নজরবন্দি ব্যুরোঃ হিংসা থেকে প্রানে বাঁচতে মায়ানমার থেকে পালিয়ে এসেছিলেন হাজার হাজার রোহিঙ্গা। অধিকাংশই আশ্রয় নিয়েছিলেন বাংলাদেশে। বাংলাদেশ থেকে অনেকেই ঢুকে পড়েন ভারতেও। খোদ রাজধানী দিল্লিতেই বেশ কয়েকজন রোহিঙ্গাকে আটক করেছিল পুলিশ। তাদের কাছ থেকে নকল ভারতীয় ভোটার প্রমাণপত্র পাওয়া গিয়েছিল। পরে তাদেরকে মায়ানমারে ফিরত পাঠায় ভারত। এখনও ভারতে রয়েছেন বহু রোহিঙ্গা। আর বাংলাদেশে সরকারি ভাবে রোহিঙ্গাদের জন্য আলাদা এলাকা তৈরি করে থাকতে দিয়েছে। রোহিঙ্গাদের নিজেদের দেশ মায়ানমারে প্রত্যাবর্তনের জন্য জোরকদমে আলাপ আলোচনা শুরু করেছিল ভারত।
এবার সেই পথেই অনেকটাই অগ্রসর হল ভারত। আর পক্রিয়ায় ভারত-বাংলাদেশ উভয়ই কাজ করবে বলে জানা গিয়েছে। বুধবার সংসদে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী নিত্যানন্দ রাই রোহিঙ্গাদের মায়ানমারে ফিরিয়ে দেওয়া নিয়ে কথা বলেন। তিনি জানাই এই কাজে ভারত বাংলাদেশ একই সঙ্গে থাকবে। ইতিমধ্যেই বিষয়টি নিয়ে দুদেশের মধ্যে উচ্চ পর্যায়ে বৈঠক শুরু হয়েছে। বাংলাদেশ ভারতের সঙ্গে সহমত পোষণ করেছে বলে জানিয়েছেন তিনি। শীঘ্রই দুই দেশে শরণার্থী রোহিঙ্গাদের মায়ানমারে ফেরানোর প্রক্রিয়া শুরু হবে। উল্লেখ্য ভারতীয় গয়েন্দা সংস্থা জানিয়েছিল পাকিস্তানি জঙ্গি সংগঠনগুলি বাংলাদেশে অবস্থানকারী রোহিঙ্গাদের টাকা দিয়ে জঙ্গি কার্যকলাপে টেনে আনত। এমনকি তাদের জঙ্গি প্রশিক্ষণ দেওয়া হত বলে অভিযোগ।
জঙ্গি প্রশিক্ষণ পাওয়া ওই সব রোহিঙ্গারা ভারতে এসে নাশকতা করতে পারে এই আশঙ্কার কথা জানিয়েছিল গোয়েন্দা সংস্থা। তারপরই নড়েচড়ে বসে ভারত সরকার। বাংলাদেশের রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলিতে হুহু করে বাড়ছে জনসংখ্যা। দেশের অর্থনীতির উপর প্রভাব পড়তে পারে এই আশঙ্কায় সরকারকে চাপ দিতে থাকেন দেশের বিশেষজ্ঞরা। এবার ভারত-বাংলাদেশ উভয়ই চাইছে রোহিঙ্গাদের নিজেদের দেশ মায়ানমারে পাঠানো হোক। তবে রোহিঙ্গা শরণার্থীরা কেউই মায়ানমারে ফিরতে চাইছেন না। দেশে ফিরলে ফের সন্ত্রাসের কোপে পড়তে হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন তাঁরা।
Loading...

No comments

Theme images by lishenjun. Powered by Blogger.