Header Ads

জুন-জুলাইয়ের দিকে করোনার প্রকোপ বাড়বে ভারতে, দাবি বিশেষজ্ঞদের।

নজরবন্দি ব্যুরো:  করোনার প্রকোপ দিন দিন বেড়েই চলেছে দেশে। পরিস্থিতির পরিপ্রেক্ষিতে একদল বিশেষজ্ঞদের দাবি এই মুহূর্তে কোনমতেই কমবে না করোনা প্রকোপ। দেশে জুন জুলাই মাসে করোনার আক্রমণ আরও বাড়বে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা, বাড়বে আক্রান্তের সংখ্যা। দিল্লির সফদরজং হাসপাতালের চিকিৎসকরা জানিয়েছেন করোনা কে রুখতে ভারতে দরকার হার্ড ইমিউনিটি তৈরি করার। আগস্ট মাসের আগে ভারতে হার্ড ইমিউনিটি তৈরি হবে না। হার্ড ইমিউনিটি বলতে বোঝায় গোষ্ঠী কেন্দ্রিক রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা। অর্থাৎ একটি গোটা এলাকার মধ্যে হার্ড ইমিউনিটি তৈরি হলে সেই এলাকা করোনা ভাইরাস আক্রমণ করতে পারবেনা। চিকিৎসক রণদীপ গুলেরিয়া মনে করছেন এই মুহূর্তে করোনা ভাইরাস দেশে নিজের জায়গা শক্ত করছে।
 জুন জুলাই মাসে ভারতের সবথেকে বেশি সংখ্যক মানুষ সংক্রমণে আক্রান্ত সম্ভাবনা রয়েছে। তারপর থেকে ধীরে ধীরে ভাইরাসের প্রকোপ কমতে থাকবে। চিকিৎসক বল্বিন্দার অরোরা জানিয়েছেন সামাজিক দূরত্বের উপর সকলকে খেয়াল রাখতে হবে। এক জায়গায় ৫ জনের বেশি মানুষ থাকা ঠিক নয়। একসঙ্গে ৩ জনের মানুষ এক জায়গায় থাকলেই সেখানে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা ভীষণ জরুরী। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার বিষয়ে দেশ-বিদেশের বিশেষজ্ঞরা শুরু থেকেই মানুষকে সতর্ক করে আসছেন। দিনে দিনে ক্ষমতা বাড়ছে ভাইরাসের। ভাইরাসকে আটকানোর একমাত্র উপায় হার্ড ইমিউনিটি অর্থাৎ গোষ্ঠী কেন্দ্রিক রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা। সেই কারণে বিশেষজ্ঞরা গোষ্ঠী কেন্দ্রিক রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা গলার দিকে বিশেষ জোর দিচ্ছেন।
Loading...

কোন মন্তব্য নেই

lishenjun থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.