Header Ads

দুশ্চিন্তার অবসান! শিক্ষক সমস্যার সমাধান করলেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়


নজরবন্দি ব্যুরো: চাকরি ফিরিয়ে দিতে হবে এই দাবিতে শিক্ষামন্ত্রীর বাড়ির সামনে সকাল থেকে ধর্নাতে বসলেন প্রায় ৫ হাজার শিক্ষক।
এই সব শিক্ষকরা মূলত রাজ্যের বিভিন্ন সরকারি ও সরকার পোষিত স্কুলের কম্পিউটার শিক্ষক ছিলেন।

জানা গিয়েছে,ইনফরমেশন কমিউনিকেশন টেকনোলজির মাধ্যমে প্রায় ৫ হাজার শিক্ষক শিক্ষিকা বিভিন্ন সরকারি ও সরকার পোষিত স্কুলে নিয়োগপত্র পেয়েছিলেন। তাঁদের মাসিক বেতন ছিল ৫ হাজার টাকার কাছাকাছি। চুক্তি অনুসারে ২০১৮ সালের ৩১ মার্চ তাঁদের চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়।
এরপর চাকরি ফেরানোর দাবি সহ একাধিক দাবিতে তাঁরা অনশনে বসেন।
বাঁকুড়া ও তারপর পুরুলিয়ায় বেশকিছু দিন ধরে চলছে তাঁদের অনশন। আর আজ তাঁরা পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বাড়ির সামনে ধর্নায় বসেন। এরপর ৬ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে এই বিতর্কিত বিষয় নিয়ে আলোচনা করার সুযোগ পান। শিক্ষামন্ত্রী জানিয়েছেন চলতি মাসের ১৭ তারিখের মধ্যে তাঁদের জন্য ইতিবাচক কিছু সিদ্ধান্ত নেবেন। তবে সামনে নির্বাচন থাকায় লিখিত ভাবে তিনি কিছু দিতে পারবেন না।
বিশেষ সূত্রের খবর, আজ রাজ্যের শিক্ষা মন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে যান চাকরি হারানো শিক্ষকরা। পার্থ-বাবু তাঁদেরকে পাঠিয়ে দেন বিকাশ-ভবনে। সেখানে রাজ্য সরকারের প্রতিনিধিদের সাথে শিক্ষকদের প্রায় ২ ঘণ্টা বৈঠকের পরে জানিয়ে দেওয়া হয়, তাদেরকে আপাতত ডিসেম্বর পর্যন্ত চাকরির মেয়াদ বাড়ানো হচ্ছে। তবে ততদিন তাদের ওই কোম্পানির আন্ডারে থাকতে হবে। পরবর্তী বাজেট অধিবেশনে তাদের কথা মাথায় রেখে এগোবে সরকার।

DESCRIPTION OF IMAGE
Theme images by caracterdesign. Powered by Blogger.