Header Ads

উচ্চ মাধ্যমিক স্কেলে বেতন ন্যায্য অধিকারের মধ্যে পড়ে! শিক্ষকদের দাবিতে শিলমোহর শাসক দলের।

নজরবন্দি ব্যুরো: পড়শি রাজ্যের শিক্ষকরা অনেক বেশি বেতন পান এই রাজ্যের শিক্ষকদের তুলনায়। এই নিয়ে ক্ষোভ আছে এই রাজ্যের শিক্ষকদের মধ্যে। এই বর্ধিত বেতনের দাবি জানিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন বেশ কিছু শিক্ষক। তবে সেই মামলা এখনও ঝুলে রয়েছে আদালতে। আর সামনেই পঞ্চায়েত নির্বাচন।
আর সেই নির্বাচনে আগে এই বেতন নিয়ে আশার আলো শোনা-গেল এই রাজ্যের শাসকদল দল তৃণমূল কংগ্রেসের নেতাদের গলায়।

গত কাল, শনিবার উত্তর ২৪ পরগনা কাঁচরাপাড়া হাইস্কুল ময়দানে শাসক দলের শিক্ষক সংগঠনের ডাকে একটি সভার আয়োজন করা হয়। ওই  সভাতে উপস্থিত থাকার কথা ছিল মাননীয় শিক্ষা মন্ত্রী তথা তৃণমূলের মহা সচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের। নির্বাচন সংক্রান্ত কাজে ব্যস্ত থাকায় তিনি ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকতে পারেনি। তাঁর বদলে ওই সভাতে উপস্থিত ছিলেন পানিহাটি বিধানসভার MLA এবং দলের মুখপাত্র নিৰ্মল ঘোষ।

তাঁরা উপস্থিত শিক্ষক ও শিক্ষিকা দের উদ্দেশ্যে বলেছেন, আপনাদের উচ্চ মাধ্যমিক স্কেল আপনাদের ন্যায্য অধিকারের মধ্যে পড়ে। এটা বেতন আপনাদের পাওয়া উচিত। উনি এই বেতন কাঠামো ৯৩০০ এবং  ৪২০০ জন্য মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীর নজরে এনেছেন বলেও দাবি করেন। তবে কবে থেকে এই বেতন কাঠামো চালু হবে তা নিয়ে কোন নিদৃষ্ট সময়ের কথা উল্লেখ করেননি। 

তবে শিক্ষক মহলের একটা অংশ মনে করেন সামনেই নির্বাচন, সেই কারণে শিক্ষকদের এই সব আশার আলো শোনাচ্ছেন রাজ্যের শাসক দলের নেতারা। আর ভোট মিটে গেলেই সবকিছু ভুলে যাবেন তাঁরা। এখন দেখার বাস্তবে কি ঘটনে ঘটে। আর সেই দিকে তাকিয়ে রাজ্যের কয়েক হাজার কর্মরত শিক্ষক।  
DESCRIPTION OF IMAGE
Theme images by caracterdesign. Powered by Blogger.