Header Ads

najarbandi alok somman 2018

অধীর সাম্রাজ্যের অবসান! মুর্শিদাবাদের নতুন চাণক্য এখন শুভেন্দু!

নজরবন্দি ব্যুরো: বাম জমানাতেও মুর্শিদাবাদে যার দাপট অব্যাহত ছিল সেই অধীর চৌধুরী নিজেই এখন পিঠ বাঁচাতে ব্যস্ত। একসময়কার লড়াকু নেতা আজ যেন বড়ই অসহায়। জেলায় নয়া সম্রাট এখন শুভেন্দু অধিকারী ওরফে কাঁথির রাজপুত্র।

২০১৪ লোকসভা ও ২০১৬ বিধানসভা নির্বাচনে গোটা রাজ্যে ঘাসফুল ঝড়ে সব লণ্ডভণ্ড হয়ে যায়। যে সামান্য কটি জায়গায় ধাক্কা খেয়ে ছিল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিজয় রথ, তার মধ্যে অন্যতম ছিল মুর্শিদাবাদ। পাশের জেলা মালদার মতোই অক্ষত ছিল অধীর গড়। একাধিক নির্বাচনে অধীরের নেতৃত্বে কংগ্রেস নিজেদের হাত শক্ত রেখেছিল।


অপরদিকে, অধীর সাম্রাজ্যের পতন সুনিশ্চিত করতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জেলার দায়িত্ব তুলে দেন শুভেন্দু অধিকীরার হাতে। আর দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকেই একে একে ভাঙন ধরে অধীরের লঙ্কাপুরীতে। কংগ্রেসের বিধায়ক সরানো থেকে শুরু করে একের পর এক পুরসভা অধীরের কাছ থেকে ছিনিয়ে নেন শুভেন্দু। এবার পঞ্চায়েত নির্বাচনের পর অধীরের সাম্রাজ্যের প্রায় পুরোটাই গ্রাস করে নেয় শুভেন্দু। জেলা থেকে প্রায় নিশ্চিহ্ন হয়ে যায় অধীর চৌধুরির কংগ্রেস। জেলায় ‘অধীর মিথ’ এখন যেন অতীত। নতুন ইতিহাস লিখলেন মুর্শিদাবাদের নয়া চাণক্য শুভেন্দু।পঞ্চায়েতে কংগ্রেসের শেষ সম্বলটুকু ছিনিয়ে নেবার পর স্বাভাবিকভাবেই খুশি পরিবহনমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী।



মুর্শিদাবাদ দখলের পর শুভেন্দু অধিকারীর স্পষ্ট বক্তব্য, ‘মুর্শিদাবাদে আর কোনও মানুষ কংগ্রেসকে সমর্থন করতে চায় না। এখানে কংগ্রেসের যে সামান্য অস্তিত্ব আছে, সেটাও মুছে যাবে ২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনের পর। নিজের বহরমপুরে কেন্দ্র অধীর চৌধুরীর যেভাবে মুখ থুবড়ে পড়বেন, তা তিনি নিজেও এখন কল্পনাও করতে পারছেন না।'
Theme images by caracterdesign. Powered by Blogger.