Header Ads

লিচু চুরির অভিযোগে দ্বিতীয় শ্রেনীর ছাত্র কে মার বাগান মালিকের।ভর্ত্তি হাসপাতালে!

নজরবন্দি,রায়গঞ্জ: লিচু চুরি করার অভিযোগে দ্বিতীয় শ্রেনীর এক শিশু ছাত্র কে মেরে বেহুশ করলো লিচু বাগান মালিক। এখনো সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে ওঠেনি ৮ বছরের মুশাবর আলম।

এমনি অমানবিক ঘটনা ঘটেছে উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জের বাসীয়ান গ্রামে। আহত দুধের শিশু মুশাবর আলম রায়গঞ্জ সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন । জানা গেছে শুক্রবার বিকালে রায়গঞ্জ থানা এলাকার বসীয়ান গ্রামে ছোট্টো মুশাবর লিচু বাগানের দিক থেকে ফিরছিল। সেই সময় লিচু বাগানের মালিক হাসিবুর লিচু চুরি করার অভিযোগে মুশাবরকে মারধোর করে। মারের চোটে অজ্ঞান হয়ে যায় মুশাবর। সেই অবস্থায় ওই শিশুকে ফেলে চলে যায় হাসিবুর বলে অভিযোগ।

বাড়ির লোকেরা মুশাবর কে মাঠের মধ্যে অজ্ঞান অবস্থায় উদ্ধার করে প্রাথমিক ভাবে তার শুশ্রূষা করে জ্ঞান ফেরালে সব ঘটনা জানা যায়। হাসিবুরের কাছে বিষয় নিয়ে কথা বলতে গেলেই উলটো হুমকি দেয় হাসিবুর বলে অভিযোগ। ওই শিশুকে রায়গঞ্জ হাসপাতালে ভর্ত্তি করা হয়েছে। হাসিবুরের নামে রায়গঞ্জ থানায় অভিযোগ জানানো হয়েছে বলে জানান মুশাবরের বাবা মুরতুজা আলী । পুলিশ ঘটনার তদন্তে নেমেছে। সাধারণ মানুষের মনে প্রশ্ন লিচু খাওয়ার জন্য এক দুধের শিশুকে এই ভাবে মারতে পারে কেউ।
DESCRIPTION OF IMAGE
Theme images by caracterdesign. Powered by Blogger.