Header Ads

এবার প্রাথমিক শিক্ষকদের উচ্চ হারে বেতন পাওয়ার রাস্তা আরও প্রশস্ত হল! #NajarbandiExclusive

নজরবন্দি ব্যুরো: রাজ্যে শিক্ষকদের বেতন বৈষম্য নিয়ে বিতর্ক অনেক দিনের। পড়শি রাজ্যের শিক্ষকরা যে বেতন পান তার থেকে অনেক কম বেতন পান এই রাজ্যের শিক্ষকরা। আর এই বেতন বৈষম্য নিয়ে আদালতে দ্বারস্থ হয়েছেন এই রাজ্যের শিক্ষকদের একটা বড় অংশ।
স্নাতক স্তরের শিক্ষকদের বেতন বৈষম্য দূরীকরণে পে-কমিশনের কাছে নির্দেশ হাইকোর্টের।
জানা গিয়েছে, অনেকদিন চুপ থাকার পরে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর স্তরের শিক্ষকদের বেতন বৈষম্য দূরীকরণে সরব হলেন শিক্ষকমহলের একটা বড় অংশ। ১০ ই মে,২০১৮ কলকাতা হাইকোর্টে ১৮৯ জন মাধ্যমিক স্তরের জন্য নিযুক্ত পাস গ্রাজুয়েট ক্যাটাগরির টিচার দের দায়ের করা মামলায় বিচারপতি এস বি সরাফের এজলাসে মামলাটি ওঠে।

মামলাকারি দের পক্ষের আইনজীবী মলয় বসু, পার্থসারথী ভট্টাচার্য, অনিন্দ্য বসু বলেন এই শিক্ষক গন রোপো ২০০৯ এ চরম বেতন বৈষম্য ও বঞ্চনার স্বীকার হয়েছেন।
এই বিষয়ে সরকারি আইনজীবী জানান ষষ্ঠ বেতন কমিশন রাজ্য সরকার গঠন করেছে তাই এমন ধরনের মামলা এখন অর্থহীন।

তখন বিচারপতি জিজ্ঞাসা করেন এরা যদি মনে করেন যে তারা বঞ্চিত হয়েছেন তাহলে তারা বিচার চাইতেই পারেন। এরপর তিনি ষষ্ঠ বেতন কমিশনের চেয়ারম্যানকে বেতন বৈষম্য এবং বঞ্চনার বিষয় গুলো পুনরায় খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন। আর এই নির্দেশ গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করেন অনেকে।

প্রসঙ্গত, উচ্চ হারে বেতনের জন্য প্রাথমিক শিক্ষকরা যে আইনি লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন সেই রাস্তা অনেকটা প্রশস্ত হল। এমনটাই মনে করেন রাজ্যের আইনজীবীদের একটা বড় অংশ।
Theme images by caracterdesign. Powered by Blogger.