Breaking News

লোকসভাতে কংগ্রেস ও তৃণমূলের জোট নিয়ে কি বললেন ওম প্রকাশ?

নজরবন্দি ব্যুরোঃ সামনেই লোকসভা নির্বাচন। আর সেই নির্বাচনে মোদীকে টেক্কা দিতে আসরে নেমে পড়েছেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। তাই তিনি সারা দেশ জুড়ে মহাজোট গড়ার আগে কংগ্রেস নেতৃত্বকে বাজিয়ে দেখে নিতে চান। আর সেই কাজ করতে গিয়েই বাংলায় উঠে এলো এক নতুন ধরনের চিত্র। প্রদেশ কংগ্রেস এখন দু-ভাগে বিভক্ত। একটি পক্ষ তৃণমূলের দিকে, অন্যপক্ষ চায় বামের সঙ্গে হাত মেলাতে।
আর এর ফলে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীও পড়েছেন বিপদে। কংগ্রেসকে উজ্জীবিত করতে তিনি কোন পন্থা অবলম্বন করবেন, তা নিয়ে ধন্দে পড়েছেন তিনি। তবে রাহুল চাইছেন এমন একটা সিদ্ধান্ত নিতে, যাতে প্রদেশ কংগ্রেসের হারানো সম্মান ফিরে আসুক। কংগ্রেস সূত্রে খবর, রাহুল গান্ধী একে একে সমস্ত প্রদেশ নেতার সঙ্গে কথা বলেন। জানতে চান নেতাদের ইচ্ছার  কথা। তাঁরা কাকে চাইছেন, কার সঙ্গে জোটে যেতে চান তাঁরা।এই অবস্থায় অধীর চৌধুরী ও আবদুল মান্নান-রা চাইছেন বামেদের সঙ্গে জোট করলে কংগ্রেস লাভবান হবে।

অপরদিকে আবুল হাসেম খান চৌধুরী, মৌসম বেনজির নুররা চাইছেন- কংগ্রেস লাভবান হবে তৃণমূল কংগ্রেসের হাত ধরলে। তাঁদের যুক্তি এই মুহূর্তে রাজ্যের পরিস্থিতি যে দিকে, তাতে কংগ্রেস যদি তৃণমূল কংগ্রেসের সঙ্গে জোট কর তবে কয়েকটি আসন পেতে পারে, অন্যথায় তা সম্ভব নয়।

আবার অধীর চৌধুরীর ইচ্ছা, কংগ্রেসের দীর্ঘমেয়াদি লাভ হবে সিপিআই(এম)-র সঙ্গে জোট করলে। সেখানে কংগ্রেস লোকসভা ভোটে বিরাট কিছু লাভ না পেলেও ভবিষ্যতের পক্ষে ভালো হবে। কারণ মুখ্যমন্ত্রী কংগ্রেস ভাঙতে সিদ্ধহস্ত। আর তৃণমূলের সাথে একসাথে থাকলে কংগ্রেসকে শেষ করে দেবে। সিপিআই(এম)-র সঙ্গে থাকলে সেই ভাঙনের সম্ভাবনা নেই।
আজ রাহুল ঘনিষ্ঠ কংগ্রেস নেতা ওমপ্রকাশ মিশ্র তাঁর ফেস-বুক ওয়ালে লেখেন, " কিন্তু বিতর্ক যাই থাক, এই রাজ্যে কংগ্রেস ও তৃণমূলের জোট হচ্ছেনা তা প্রায় নিশ্চিত।"

অধ্যাপক ও কংগ্রেস হেভিওয়েট এই নেতার বক্তব্য থেকে স্পষ্ট, তৃণমূল সর্বভারতীয় ক্ষেত্রে প্রাসঙ্গিক থাকার জন্য যতই কংগ্রেসের সাথে জোট করার চেষ্টা দেখাকনা,  ২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনে কং ও তৃণমূলের জোট হচ্ছেনা তা প্রায় নিশ্চিত।

No comments