Header Ads

বোলপুর লোকসভা কেন্দ্র থেকে তৃণমূল প্রার্থী হতে পারেন সোমনাথ পুত্র বা কন্যা!! জল্পনা তুঙ্গে

নজরবন্দি ব্যুরো: বাবার শেষ যাত্রায় বিমান-সূর্যকে বরদাস্ত নয়! বক্তা আর কেউ নয়, তিনি সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়ের একমাত্র পুত্র প্রতাপ চট্টোপাধ্যায়। গতকাল রাজা বসন্ত রায় রোডের বাড়িতে সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়কে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে আসেন সীতারাম ইয়েচুরি। তাঁকেই মনের ক্ষোভ উগড়ে দিলেন প্রতাপ। তিনি বললেন,‘বাবাকে ওরা সারাজীবন শুষে খেয়েছে! এখন ন্যাকামি দেখাতে এসছে, ওদের একদম বরদাস্ত করা হবে না।’

বেশ চিৎকারের সাথে এই বক্তব্য রাখেন প্রতাপ। প্রতাপ বলেন, ‘ওদেরকে বের করে দিতে বলেছি, পুলিশকে বলেছি কেউ যেন না ঢুকতে পারে, ৩০০ মিটারের মধ্যে ওদের যেন না দেখতে পাই!’ সীতারাম ইয়েচুরির সামনেই ক্ষোভে ফাটলেন প্রতাপ! বললেন, ‘সারাজীবন এদের অত্যাচার সহ্য করতে হয়েছে আমার বাবাকে’৷ পরিস্থিতি ক্রমেই জটিল হচ্ছে দেখে এগিয়ে আসেন সুজন চক্রবর্তী। তাঁরই মধ্যস্থতায় সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়কে শেষ শ্রদ্ধা জানান সূর্যকান্ত মিশ্র ও বিমান বসু। প্রতাপ চট্টোপাধ্যায়ের এই ব্যবহার নিয়ে বিমান বসু বলেন , বাবাকে হারিয়ে প্রতাপ শোকার্ত৷ মন থেকে হয়ত বলেননি। এর পরে বিমান বসু জানান, প্রতাপ চট্টোপাধ্যায়কে বাবা সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়ও পছন্দ করতেন না। অপর দিকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন সোমনাথ-কন্যা বলেন, রাজনীতির ঊর্ধ্বে উঠে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর দায়িত্ব পালন করেছেন। সব জায়গায় তো রাজনীতি, মতাদর্শ চলে না, ব্যক্তিগত সম্পর্কও একটা বড় ব্যাপার। আর এর পরে থেকে রাজনৈতিক মহলে একটা প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে, তাহলে কি সোমনাথ বাবুর পুত্র ও কন্যা নাম লেখাতে চলেছেন জোড়া ফুলে? আর এই নিয়ে বেশ সরগরম রাজ্য রাজনীতি। তাছাড়া গতকাল সোমনাথ-কন্যা সরসরি রাজ্য সরকারকে প্রশংসা করার থেকে যেভাবে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে প্রশংসা করেছেন তাতে এই প্রশ্ন আরও জোরালো ভাবে উঠতে শুরু করেছে। সোশ্যাল মিডিয়া ছয়লাপ সোমনাথ পুত্র কন্যার সমালোচনায়।

অন্যদিকে সোমনাথ বাবুর প্রাক্তন লোকসভা কেন্দ্র বোলপুরের বর্তমান সাংসদ তৃণমূলের অনুপম হাজরা গত কয়েক মাস ধরেই দলের সুনজরে নেই। শোনা গেছে বর্তমানে বিজেপির দাপুটে নেতা মুকুল রায়ের সাথেও তার সম্পর্ক রেখে চলার কথা। সেক্ষেত্রে ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের আগে যদি অনুপম তৃণমূল ছেড়ে বেরিয়ে বিজেপিতে যোগদান করেন আর বোলপুর কেন্দ্রের প্রার্থী হন সেক্ষেত্রে তার বিরুদ্ধে তৃণমূলের টিকিটে লড়াইতে নামতেই পারেন প্রতাপ বা সোমনাথ কন্যা! সময় বলবে কি হয় কারন আসনটি সিডিউল সংরক্ষিত। তবে কিনা রাজনীতিতে সব সময় ২ আর ২ এ চার হয়না কখনো কখনো ৫ ও হয়!

No comments

Theme images by sndr. Powered by Blogger.