Header Ads

najarbandi alok somman 2018

সিপিআইএম নয়, কান্তি-সুজন-বিকাশ বাবুরা করছেন সোমনাথের স্মরন সভা! পড়ুন...

নজরবন্দি ব্যুরোঃ আলোচনার কেন্দ্র বিন্দুতে সদ্য প্রয়াত সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়। এবার বিতর্কের অবতারনার কারন তার স্মরনসভা! যাবতীয় বিতর্ক ভুলে প্রয়াত সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়ের স্মরণ-সভার আয়োজন করতে চলেছে বঙ্গ সিপিআই(এম)। তবে সরাসরি সিপিআই(এম) ব্যানারে হচ্ছে না এই সভা!

এখানেই উঠছে প্রশ্ন। দলের ১০ বারের সাংসদ, বহিষ্কার হওয়ার পরেও আজন্ম বামপন্থী সোমনাথ বাবুর শবদেহের সব থেকে বড় অপ্রাপ্তি লাল পতাকা! আর এবার তারই প্রাক্তন দলের একাধিক হেভিওয়েট মুখের সম্মিলিত প্রয়াসে হতে চলেছে স্মরন সভা। কিন্তু কোথাও উল্লেখ নেই সিপিআইএমের! দলবিরোধী কাজের সাথে যুক্ত থাকায় দোষী সাব্যস্ত সোমনাথ বাবুর স্মরন সভা যারা করছেন তারাও শুধু সিপিআইএম পার্টির সদস্য নয় বহু গুরুত্বপূর্ন পদে যুক্ত! ব্যাপার টা কেমন গোলানো নয় কি? দলবিরোধী বহিষ্কৃত ব্যাক্তির স্মরন সভা করবেন সেই দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্যরাই শুধু থাকবে না দলের ব্যানার!

সোমনাথ বাবুর মৃত্যুর কয়েক ঘণ্টা পরে (কার্যত সীতারাম ইয়েচুরির অনেক চেষ্টার ফল) পলিটব্যুরো বিবৃতি দিলেও তা ছিল অনেকটা চাঁদ সওদাগরের পুজো দেওয়ার মতই! বিবৃতিতে কোথাও উল্লেখ করা হয়নি সোমনাথ বাবু যে দলের হয়ে এমপি হয়েছিলেন সেই দলের নাম!
আর এবার স্মরনে সোমনাথ হতে চলেছে সিপিআইএম নয় সিটিজেন্স ফোরাম কে সামনে রেখে!! আগামী ২৩ আগস্ট যাদবপুর সিটিজেনস ফোরামের ব্যানারে পবিত্র সরকার, বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্যদের উদ্যোগে  সুকান্ত সেতুতে প্রয়াত সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়ের স্মরণসভার আয়োজন করা হয়েছে।

যদিও একথা বলতে দ্বিধা নেই সভার সব কিছুই পিছন থেকে পরিচালনা করছে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা সিপিআইএম তথা কান্তি গাঙ্গুলি, সুজন চক্রবর্তী বা শমীক লাহিড়ী রা! ২৩ তারিখ উপস্থিত থাকবেন বাম নেতা সহ একাধিক দলের নেতারাও। সিপিআইএমের হেভিওয়েট নেতা কান্তি গাঙ্গুলি নিজের ফেসবুক প্রোফাইল থেকে আমন্ত্রন পত্র পোষ্ট করেছেন!
Theme images by caracterdesign. Powered by Blogger.