মোদীর হাত আছে মালিয়ার পলায়নে!! রাহুলের চাঁচাছোলা প্রশ্নে বেকায়দায় বিজেপি।

নজরবন্দি ব্যুরোঃ অরুন জেটলি বলেছেন পার্লামেন্টে বিজয় মালিয়া তাঁকে 'ইনফর্মালি অ্যাপ্রোচ' করেছিলেন। উল্লেখ্য, বিজয় মালিয়া লন্ডনে ওয়েস্ট মিনস্টার আদালতের বাইরে দাঁড়িয়ে বলেছেন, দেশ ছাড়ার আগে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির সঙ্গে দেখা করে বিষয়টি নিষ্পত্তির প্রস্তাব দিয়েছিলেন তিনি।তাঁর উত্তরে অরুণ জেটলি জানিয়ে দেন, বিজয় মালিয়াকে কোনও অ্যাপয়েন্টমেন্ট তিনি দেননি। সংসদে দু বছর আগে একবার পিছন থেকে ছুটে এসে মালিয়া তাঁকে কিছু বলার চেষ্টা করেন।তাতে তিনি কান দেননি! 

একজন ঋণখেলাপি ক্রিমিন্যাল দেশের অর্থমন্ত্রীকে বলে গেলেন দেশ থেকে পালাচ্ছি আর তিনি কাউকে কিছু জানালেন না? সংসদে দাঁড়িয়ে বিজয় মালিয়া অরুন জেটলিকে সব ঘটনা বলার পরও কেন তিনি পুলিশকে বলে তাকে গ্রেফতার করলেন না? কি গোপন সমঝোতা হয়েছিল সেদিন? প্রধানমন্ত্রী চুপ কেন? অবিলম্বে জেটলির উচিত এই বিষয়ে সত্যি কথা বলে পদত্যাগ করা ।

১ মার্চ ২০১৬-র সিসিটিভি ফুটেজ দেখলেই প্রমাণ হয়ে যাবে, দাবি করেন কংগ্রেসের পুনিয়া মহাজন। পার্লামেন্টের সেন্ট্রাল হলে মিটিং করেছিলেন বিজয় মালিয়া এবং অর্থমন্ত্রী অরুন জেটলি। রীতিমত অন্তরঙ্গ হয়ে কথা বলছিলেন দুজনে!

রাহুলের আরও অভিযোগ লন্ডনে পালিয়ে যাওয়ার আগে দেশের অর্থমন্ত্রীকে জানিয়ে পালাচ্ছে একজন ক্রিমিন্যাল! আর তাঁর পরেও এতদিন চুপ ছিলেন তিনি? এটা কি প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে না তাঁর ব্যাক্তিগত উদ্যোগে? কারন মালিয়ার পলায়নের আগে অ্যারেস্ট নোটিশ বদলে গিয়ে ইনফর্ম নোটিস হয়ে গিয়েছিল!! কার নির্দেশে এই নোটিশ বদল? তবে কি বিজয় মালিয়ার পলায়নে সরাসরি মোদীর হাত? 
DESCRIPTION OF IMAGE

No comments

Theme images by caracterdesign. Powered by Blogger.