Header Ads

হবু শিক্ষকরা কাজে যোগ দিতে পারবেন পুজোর আগেই! আস্বস্ত করলেন এক আধিকারিক।

নজরবন্দি ব্যুরো: একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণিতে শিক্ষক নিয়োগের জন্য ইতিমধ্যেই স্কুল সার্ভিস কমিশন থেকে মধ্য শিক্ষা পর্ষদের কাছে সুপারিশ করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। শিক্ষা দপ্তরের নজরদারিতে নিয়োগ-পত্র বিলি করবে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ । উপ সচিব ছুটিতে থাকায় নিয়োগ-পত্র দেওয়া নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়। ফলে এসএসসি নিয়োগের সুপারিশ করার পরেও থমকে ছিল নিয়োগ-পত্র বিলি। নতুন এই প্রক্রিয়া চালু হওয়ার ফলে উপকৃত হবেন রাজ্যের কয়েক হাজার চাকরি-প্রার্থী। সবকিছু নিয়ম মাফিক চললে, পুজোর আগে সফল প্রার্থীরা কাজে যোগদিতে পারবেন। এমনটাই জানালেন এক আধিকারিক। প্রসঙ্গত, অনেক বিতর্ক ও ঝামেলার পর একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণীতে শিক্ষক নিয়োগের জন্য ইতিমধ্যেই স্কুল সার্ভিস কমিশন থেকে মধ্য শিক্ষা পর্ষদের কাছে সুপারিশ করা হয়েছে।
কিন্তু তারপরও অনেকটা সময় পেরিয়ে গিয়েছে। অথচ নিয়োগ-পত্র এখনও হাতে পায়নি চাকরি প্রার্থীরা। আর এই নিয়োগপত্র না মেলায় ক্ষোভ বাড়ছিল। শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের কাছে অভিযোগ জমা পড়ার পর মুশকিল আসান হয়ে গেল। জানা গিয়েছে, এবার শিক্ষা দপ্তরের নজরদারিতে নিয়োগ-পত্র বিলি করবে মধ্য-শিক্ষা পর্ষদ। সোমবার থেকেই সেই কাজ শুরু হবে। শিক্ষা-মহলের প্রশ্ন, এমনিতেই শিক্ষক সঙ্কট রয়েছে স্কুলগুলিতে। সেখানে এসএসসি প্যানেলের সুপারিশ করলেও, তা নিয়ে এমন টালবাহানা কেন করছিল পর্ষদ? উপ সচিব ছুটিতে থাকায় নিয়োগ-পত্র দেওয়া নিয়ে জটিলতা তৈরি হয়েছিল। ফলে কমিশন নিয়োগের সুপারিশ করলেও আটকে ছিল নিয়োগ-পত্র বিলির প্রক্রিয়া। দপ্তর সূত্রে খবর, শিক্ষক দিবসের দিন পর্ষদ সভাপতির সঙ্গে মন্ত্রী কথা বলেছেন। কেন এই কাজ হচ্ছে না, তা নিয়ে ক্ষোভও প্রকাশ করেন তিনি। মন্ত্রীর হস্তক্ষেপে শেষ পর্যন্ত জট কাটল বলে মনে করা হচ্ছে। শিক্ষামন্ত্রী বলেন, কার ছুটি আছে না আছে, জানি না। শীঘ্রই নিয়োগ-পত্র ছাড়তে বলা হয়েছে।
DESCRIPTION OF IMAGE

No comments

Theme images by sndr. Powered by Blogger.