টেট বিতর্ক, হাইকোর্টের রায়ে নাম্বার বাড়লে কারা হবেন উপকৃত?

নজরবন্দি ব্যুরোঃ শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষা সংক্রান্ত একাধিক সমস্যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল প্রশ্নপত্রের উত্তরে ভুল। এর আগেই এই ভুলের কারণে ভোগান্তি বেড়েছে চাকরি প্রার্থীদের। আবারও হাইকোর্টের রায়ে প্রশ্ন উঠে গেল চাকরি প্রার্থী ও ইতিমধ্যেই চাকরি পেয়ে যাওয়া শিক্ষকদের ভবিষ্যৎ নিয়ে। ২০১৪ সালের বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, ২০১৫ সালের অক্টোবরে যে পরীক্ষা হয়েছিল টেটের সেই প্রশ্নপত্রের মালটিপল চয়েস কোয়েশ্চেনের ১১টির মধ্যে ৬টিতেই ভুল ছিল। আগামি ৩ অক্টোবর এই সংক্রান্ত রায় শোনাবে হাইকোর্ট। তখনই জানা যাবে, ভুল প্রশ্ন গুলিতে নম্বর পাবেন কিনা পরিক্ষার্থীরা। সেখানে একটি প্রশ্ন তৈরি হবে। এই নম্বর কারা পাবেন? যারা মামলা করেছিলেন তারাই? নাকি অন্যান্যরাও। এক্ষেত্রে অবশ্য হাইকোর্টের পুরাতন রায় অনুযায়ী, যারা মামলা করেছেন রায় শুধুমাত্র তাদের ক্ষেত্রেই কার্যকর হবে।
এদিকে আরেকটি প্রশ্নও ভাবাচ্ছে ইতিমধ্যেই চাকরি পেয়ে যাওয়া শিক্ষকদের। আদালতের এই রায় কি কোনোভাবে প্রভাবিত করবে তাদের ভবিষ্যতকে? ২০১৪ র টেট দিয়ে যারা চাকরি পেয়েছেন এই রায় কি নতুন কোনো সমস্যা ডেকে আনবে তাদের জন্য? প্রমাদ গুনছেন সদ্য চাকরি পাওয়া শিক্ষকরা।
DESCRIPTION OF IMAGE

No comments

Theme images by caracterdesign. Powered by Blogger.