Header Ads

তৃনমূল-বিজেপি বিরোধীদের স্বপ্ন বাম-কংগ্রেস জোট হচ্ছেই লোকসভা নির্বাচনে। #SpecialArticle

অরুনাভ সেনঃ ফের বাম-কংগ্রেস জোটের স্বপ্ন দেখছেন বাংলার মানুষ৷প্রিন্ট বা ইলেকট্রনিক মিডিয়াতে খবরগুলো এমনভাবে পরিবেশন করা হয় পড়লে মনে হবে সারা রাজ্যের বেশীরভাগ মানুষ তৃণমূলকে সমর্থন করেন,আর কিছুটা অংশ বিজেপিকে৷ অবশিষ্ট সামান্য অংশের মানুষের সমর্থন নিয়ে যেন মিডিয়াগুলোর দৌলতে বেঁচে আছে বাম আর কংগ্রেস৷অথচ গত বিধানসভা নির্বাচন প্রমান দিয়েছে বাম-কংগ্রেস এক হলে এই রাজ্যেই তৃণমূলকে শক্ত প্রতিদ্বন্ধীতার মুখে ফেলা যায়,বিজেপিকে প্রায় উড়িয়েই দেওয়া যায়৷
আপাদমস্তক তৃণমূল ও বিজেপি বিরোধী মানুষেরা কিন্তু আবার স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছেন,লোকসভায় বাংলায় বাম-কংগ্রেস জোট হচ্ছেই৷এবার কিন্তু বিধানসভার মত ভুলের পুনরাবৃত্তি করতে নারাজ বাম নেতৃত্ব৷সোমবার সিজিও কমপ্লেক্সের কাছে সিবিআই ইস্যু নিয়ে বিক্ষোভ সভায় সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র বলেছেন বামেরা যেখানে দূর্বল সেখানে কংগ্রেসকেই ভোট দিতে হবে৷একই কথার পুনরাবৃত্তি তিনি করেছেন গোলপার্কের সভায়৷উল্টোদিকে প্রদেশ কংগ্রেস এই জোট বার্তায় ইতিবাচক সাড়া দেবে কিনা সেই বিষয়ে অনেকেই সংশয় প্রকাশ করেছিলেন৷অন্তত বামেদের একতরফা জোট ছেড়ে বেরিয়ে যাওয়া প্রদেশ নেতৃত্বকে কে খুশী করেনি বলাই বাহুল্য৷

যদিও রাগ-অভিমান ভুলে বামেদের জোট বার্তাকে কার্যত স্বাগত জানিয়েছেন প্রদেশ সভাপতি সোমেন মিত্র৷আসলে বাম-কংগ্রেস জোট হলে যেমন শক্ত চ্যালেঞ্জের মুখে পড়বে তৃণমূল,তেমনই বাংলা থেকে বিজেপির ২২ আসন জয়ের টার্গেট কেবল স্বপ্নেই থেকে যাবে৷রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন বাম-কংগ্রেস জোট হলে রাজ্যের অনেক আসনেই তৃণমূলকে কঠিন প্রতিদ্বন্ধীতার মুখে পড়তে হবে৷আবার বাম-কংগ্রেস ভোট এক হলে রাজ্যের বেশীরভাগ আসনে বিজেপিকে তৃতীয় হয়েই সন্তুষ্ট হতে হবে৷আপাদমস্তক তৃণমূল বিরোধী অথচ হতাশায় যারা বামেদের ছেড়ে বিজেপিতে গিয়েছিলেন এমন ভোটাররা আবার পুরনো দলে ফিরবেন বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা,তাদের আরও মত যারা কংগ্রেস ছেড়ে উন্নয়নের স্লোগানে মোহিত হয়ে দল ছেড়েছিলেন তারাও আবার পুরনো দলে ফিরবেন৷
আসলে বাম-কংগ্রেস জোট হলে বিপাকে যেমন পড়বে বিজেপি,তেমনই তৃণমূলের নিজেদের হিসেব অনুযায়ী অনেক সিওর সিটের সমীকরণটাই বদলে যাবে৷প্রত্যাশার অনেক কম আসনেই থামতে হবে তৃণমূলকে,উল্টোদিকে বাংলায় বিজেপির আসল শক্তি বোঝা যাবে৷নিন্দুক এমনও বলছেন বাংলায় বাম-কংগ্রেস জোট হলে হয়ত লোকসভায় আসন প্রাপ্তির হিসেবে বিজেপি ১৪এর ফলাফল করতে পারবে না,বরং তারা যদি একটিও আসন না জিততে পারে অবাক হবেন না রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা৷মজার ব্যাপার হল এবার কিন্তু অতীতের ভুলের পুনরাবৃত্তি করতে চাইছেন না জোটের পক্ষে সওয়ালকারী বাম নেতৃত্ব৷১৬'র বিধানসভা নির্বাচনে শেষবেলার জোট অনেকের কাছে বিশ্বাসযোগ্য মনে হয়নি৷
সেইজন্য এবার কিন্তু আগেভাগেই জোটের পক্ষে সওয়াল করল আলিমুদ্দিন৷প্রদেশ নেতৃত্ব বামেদের এই পদক্ষেপকে ইতিবাচক ভাবে গ্রহন করেছে প্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতি সোমেন মিত্রের বিবৃতিতে সেই বিষয় পরিস্কার হয়েছে৷সবমিলিয়ে এটা বলা যায় বাম-কংগ্রেসের আবার নতুন করে জোটের সম্ভাবনা উজ্জ্বল হতে হাসির ঝিলিক তৃণমূল-বিজেপি বিরোধী মানুষদের মুখে৷তাদের বক্তব্য পঞ্চায়েত নির্বাচনের মত জোর যার মুল্লুক তার, এমন পরিবেশ থাকবে না,মানুষ অবাধে তার গণতান্ত্রিক অধিকার প্রয়োগ করবেন৷তৃণমূলের বিরুদ্ধে প্রতিষ্ঠান বিরোধীতার হাওয়া বইছে,বিজেপির মেরুকরনের রাজনীতিতে মানুষ অতিষ্ঠ৷স্বভাবত রাজ্যের গনতান্ত্রিক চেতনাসম্পন্ন,বিবেকবান,শিরদাঁড়া সোজা মানুষেরা বিজেপি নয়,তৃণমূলের বিকল্প হিসেবে বাছবেন হাত-কাস্তেকে৷
Theme images by caracterdesign. Powered by Blogger.