Header Ads

টেট মামলার রায় দান আজ! রায়ের দিকে তাকিয়ে পরীক্ষার্থীরা।



নজরবন্দি ব্যুরো: ২০১৪ সালে টেটের প্রশ্নপত্র নিয়ে তৈরি হয় বিতর্ক। প্রশ্নপত্রের মধ্যে ভুল ছিল বলে অভিযোগ পরীক্ষার্থীদের। আর নিয়ে মামলা হয় আদালতে। ১১ টি প্রশ্ন ঠিক না ভুল সেই মামলার রায় দান আজ।

আজ থেকে প্রায় চার বছর আগে প্রাথমিক শিক্ষা সংসদ বিজ্ঞপ্তি জারি করে প্রথম শ্রেণী থেকে পঞ্চম শ্রেণী পর্যন্ত শিক্ষক নিয়োগের জন্য। পরীক্ষা হয় ২০১৫ সালের ১১ই অক্টোবর। এই পরীক্ষাতে বসেন প্রায় ৩০ লক্ষ পরীক্ষার্থী। ১৫০ নম্বরের পরীক্ষায় ১১টি প্রশ্নে ভুল ছিল বলে অভিযোগ পরীক্ষার্থীদের একটা বড় অংশের।

২০১৭ সালে প্রায় ৫০০ জন টেট পরীক্ষার্থী মামলা দায়ের করেন আদালতে। আর সেই মামলার শুনানি চলে টানা এক বছর ধরে। মামলাকারীদের পক্ষের আইনজীবী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য ও বিক্রম বন্দ্যোপাধ্যায় আদালতে প্রশ্ন তোলেন, ১১ টি প্রশ্নপত্রের মধ্যে কোথাও প্রশ্ন ভুল আবার কোথাও উত্তরে ভুল ছিল কিনা তা দেখতে হবে আদালতকে। ভুল হলে পরীক্ষার্থীরা ১১ নম্বর পাবেন না কোন যুক্তিতে!

এর আগে বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায় নির্দেশ দেন বিশ্বভারতীর উপাচার্যকে প্রশ্ন যাচাই করতে এক্সপার্ট কমিটি গঠন করার। বিচারপতি বলেন, যদি প্রশ্নে ভুল থাকে তবে সেই প্রশ্নের পুরো নম্বর পাবেন পরীক্ষার্থীরা। ১৯শে সেপ্টেম্বর বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ মুখ বন্ধ খামে আদালতের কাছে রিপোর্ট জমা দেন। সূত্রের দাবি, প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের ১১টির মধ্যে ৬টি প্রশ্নই ভুল ছিল।

আর আজ টেট মামলায় চূড়ান্ত রায় দেবেন বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায়। সেই রায়ে উপর নির্ভর করছে কয়েক লক্ষ চাকরি প্রার্থীদের ভবিষ্যৎ।

DESCRIPTION OF IMAGE
Theme images by caracterdesign. Powered by Blogger.