"চাকরি নেই, তাই চোলাই তৈরি করি", বেকারত্বের জ্বালায় কোন পথে রাজ্য? দায় কার?

নজরবন্দি ব্যুরোঃ নেই চাকরি, নেই অর্থের সংস্থান, নেই জীবনধারণের বিকল্প পথ। বেকারত্বের থাবা রাজ্যকে করে তুলেছে কঙ্কালসার। শিক্ষিত হয়েও নেই চাকরি। আর তাই বাধ্য হয়ে চোলাই মদের কারবারে নেমেছে যুবসমাজ।
নদীয়ার শান্তিপুরে বিষমদ খেয়ে মৃত্যুর ঘটনা ঘটার পরেই শুরু হয় প্রশাসনিক ধরপাকর। রাজ্য জুড়ে বন্ধ করা হচ্ছে চোলাই মদের ব্যবসা। আর এই কর্মকান্ডের মধ্যেই সামনে এসে পড়েছে বেকারত্বের বেআব্রু চেহারা। চাকরির অভাবে শিক্ষিত বেকাররা নামছেন অবৈধ কাজে। বিসর্জন দিতে বাধ্য হচ্ছেন নৈতিকতা। আর তারই মধ্যে জন্ম নিয়েছে এক অসহায় প্রশ্ন, "চাকরি নেই, কি করবো?" পড়াশুনো শিখেছেন৷ অথচ চাকরি নেই। এলাকায় না আছে কোনো কারখানা, না আছে রোজগারের কোনো উপায়। আর তাই বাধ্য হয়ে অবৈধ চোলাই মদের ব্যবসা করেন। নির্বিকার স্বীকারোক্তি। তবে এ দায় কার? চাকরি হীন বেকার যুবকদের? নাকি রাজ্যের সরকারের, যে সরকারের অক্ষম শরীর কেবলই বহন করে আন্দোলন-বিক্ষোভের গ্লানি? প্রশ্ন তুলছেন রাজ্যের মানুষ।
Bengali Movie Air Hostess

DESCRIPTION OF IMAGE
Loading...
Theme images by caracterdesign. Powered by Blogger.