নিজের আত্মজীবনীতে গ্রেগ চ্যাপেলেকে নিয়ে বিস্ফোরক ভি ভি এস। কি বলেছেন তিনি? জানুন।

নজরবন্দি ব্যুরোঃ গ্রেগ চ্যাপেলের মনোভাব অত্যন্ত কঠোর এবং অনমনীয়। চ্যাপেল জানেন না কীভাবে আন্তর্জাতিক দল চালাতে হয়। টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন অজি কোচ সম্পর্কে এমনই বিস্ফোরক মতামত ব্যক্ত করেন ভিভিএস লক্ষ্মণ। নিজের আত্মজীবনী '২৮১ অ্যান্ড বিয়ন্ড'এ একদা নিজের জাতীয় কোচ সম্পর্কে এমনটাই জানিয়েছেন টিম ইন্ডিয়ার 'ভেরি ভেরি স্পেশাল' মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান।
শুধু সমালোচনা করাই নয়, পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন, একটা আন্তর্জাতিক দলকে কীভাবে পরিচালনা করতে হয়, তার ন্যূনতম জ্ঞান ছিল না গ্রেগ চ্যাপেলের। এমনকী, দলের মধ্যে গ্রেগ চ্যাপেল বিভাজন তৈরি করেছিলেন বলেও দাবি করেছেন লক্ষ্মণ। আত্মজীবনীতে লক্ষ্মণ লিখেছেন, 'কয়েকজন গ্রেগের প্রিয়পাত্র ছিল। তাদের খুব ভালভাবে দেখাশোনা করতেন। বাকিদের দিকে একেবারে ফিরেও তাকাতেন না। এর ফলে দলের সংহতি নষ্ট হয়েছিল। দলের মধ্যে তিক্ততা সৃষ্টির জন্য গ্রেগ চ্যাপেলই দায়ী ছিলেন।

আত্মজীবনীতে লক্ষ্মণ আরও লিখেছেন, 'গ্রেগ যখন জাতীয় দলের দায়িত্ব নিয়েছিলেন, সুনাম নিয়েই এদেশে এসেছিলেন। কিন্তু পরে দলটাকে ভেঙে টুকরো টুকরো করে দিয়েছিলেন। আমার ক্রিকেট জীবনে গ্রেগ্রের সময়টাই ছিল সব থেকে জঘন্য। ওর জমানায় ভারতীয় দলের পারফরমেন্সই বলে দেবে তাঁর কাজ করার ধরন কেমন ছিল।গ্রেগের সময় যতটুকু সাফল্য এসেছিল, তাতে ওর কোনও কৃতিত্ব ছিল না।
 ব্যাটসম্যান গ্রেগ চ্যাপেলকে অবশ্যই শ্রদ্ধা করব, কিন্তু কোচ গ্রেগ চ্যাপেলকে নয়।' শুধু গ্রেগ চ্যাপেলকে সমালোচনা করাই নয়, শচীন, সৌরভ, আজহারউদ্দিন, শেহবাগ, দ্রাবিড়দের সঙ্গে তাঁর কেমন বন্ধুত্ব ছিল, আত্মজীবনীতে সে কথাও তুলে ধরেছেন লক্ষ্মণ। ইডেনে ২০০১ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ২৮১ রানের সেই অবিস্মরণীয় ইনিংসের কথাও আলাদা গুরুত্ব পেয়েছে। তিনি লিখেছেন, 'ইডেন গার্ডেন্সকে আমার স্বপ্নের মঞ্চ বললেও কম বলা হবে।
Bengali Movie Air Hostess

DESCRIPTION OF IMAGE
Loading...

No comments

Theme images by caracterdesign. Powered by Blogger.