পড়ুয়াদের ওপর আঘাত করেছে তৃণমূল। 'সাজানো' ঘটনায় বাম ছাত্রদের গ্রেপ্তারির জবাবে প্রস্তুত বামেরা।

নজরবন্দি ব্যুরোঃ ধর্মঘটের দ্বিতীয় দিনে স্কুলের পুলকার ভাঙা ও ছাত্রছাত্রীদের ওপর অত্যাচারের অভিযোগ তোলা হয়েছে বেশ কিছু বাম সমর্থকের বিরুদ্ধে৷ ঘটনায় ২২ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তবে এবার প্রকাশ্যে নতুন তথ্য। ধর্মঘটের সমর্থনে নামা বাম সমর্থকদের ফাঁসানোর জন্যেই সম্পূর্ণ পরিকল্পিত ভাবে এই ঘটনা ঘটানো হয়েছে, অভিযোগ এসএফআই রাজ্য সভাপতির।

বুধবার কলকাতার অ্যাংলো অ্যারাবিক স্কুলের একটি পুলকার ভাঙা এবং তাতে থাকা পড়ুয়াদের ওপর নির্যাতনের অভিযোগ করা হয় ধর্মঘটীদের বিরুদ্ধে। তবে গোটা ঘটনাটিই সাজানো বলে দাবি করা হল এবার। আহত পড়ুয়ার অভিভাবক হিসেবে যাকে সংবাদ মাধ্যমে দেখানো হয়েছে তিনি আসলে এক স্থানীয় নেতা৷ এমনকি ওই স্কুলের জিবি হলেন রাজাবাজারের ৩৭ নং ওয়ার্ডের তৃণমূল কাউন্সিলর সোমা চৌধুরী।

এই প্রসঙ্গে এসএফআই এর রাজ্য সভাপতি প্রতীক উর রহমান জানিয়েছেন, ছাত্রদের ফাঁসানোর চেষ্টা করা হয়েছে। পুলকার ছাত্ররা ভাঙেনি৷ এই কান্ড তৃণমূল কর্মীরা ঘটিয়েছে৷ এই 'সাজানো' ঘটনায় গ্রেপ্তার সমস্ত ছাত্রের নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করা হয়েছে৷ তা নাহলে রাজ্যজুড়ে আন্দোলনে নামার হুঁশিয়ারি দিয়েছে বামেরা।
DESCRIPTION OF IMAGE
Loading...

No comments

Theme images by caracterdesign. Powered by Blogger.