জানুয়ারি '১৬ থেকে বকেয়া পাবেন? কতটা বাড়ছে রাজ্য সরকারি কর্মীদের বেতন? #Exclusive

নজরবন্দি ব্যুরো: লোকসভা নির্বাচনে ধাক্কা খাবার পরে রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের বেতন বৃদ্ধি নিয়ে উদ্যোগ নিয়েছে রাজ্য সরকার। খুব তাড়াতাড়ি চালু হতে চলেছে ষষ্ঠ পে কমিশন।দীর্ঘদিন ধরে ফাইলবন্দি পে কমিশনের রিপোর্ট জমা পড়তে চলেছে চলতি মাসেই। কিছুদিন আগেই বিধানসভায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, বছর শেষের আগেই ষষ্ঠ পে কমিশনের রিপোর্ট নিয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন তিনি। রিপোর্ট পেলেই সঙ্গে সঙ্গে উদ্যোগ নেওয়া হবে। একইসঙ্গে বছর শেষের আগেই ষষ্ঠ পে কমিশন চালুর ব্যাপারেও ইঙ্গিত মিলেছিল মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যে। মুখ্যমন্ত্রী বলেছিলেন, সময়ের তিন মাস আগেই রিপোর্ট চেয়েছি। হাতে পেলেই চলতি বছর থেকেই নয়া বেতন কাঠামোয় বেতন পেতে পারেন রাজ্য সরকারি কর্মচারীরা।
সম্প্রতি ষষ্ঠ পে কমিশনের মেয়াদ বাড়িয়ে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত করে রাজ্য সরকার। শীঘ্রই সরকারি কর্মচারীদের বেতন কাঠামো পরিবর্তন হতে চলেছে বলে খবর। চলতি বছরে পুজোর আগেই মিলতে পারে সুখবর। কিন্তু কতটা বাড়ছে বেতন? অনেকদিন ধরে ঝুলে রয়েছে ষষ্ঠ পে কমিশনের রিপোর্ট। যোগ্যতা সম্পন্ন অতিথি অধ্যাপকদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ খবর শোনালেন শিক্ষামন্ত্রী! সপ্তম বেতন কমিশনের আওতায় বেতন পান কেন্দ্রীয় সরকারের কর্মচারীরা। এখনও পঞ্চমেই আটকে রাজ্য। কেন্দ্র ও রাজ্যের কর্মচারীদের ডিএ-এর ফারাক এখন ৫৬%। ষষ্ঠ পে কমিশনের রিপোর্ট জমা পড়ার পর তা গৃহীত হলে ও বাস্তবায়িত হলে এই ফারাক কিছুটা কমবে বলেই মনে করছে রাজ্য সরকারি কর্মচারীরা।
বিশেষ সূত্রের খবর বেতন কমিশন অনুযায়ী কেন্দ্রীয় হারেই হতে চলেছে রাজ্য সরকারি কর্মীদের নতুন বেতন কাঠামো। ২.৫৭ লিফমেন্ট ফ্যাক্টর পদ্ধতিতে বেতন বাড়তে পারে রাজ্য সরকারি কর্মীদের। অর্থাৎ যে কোন কর্মীর মূল বেতন কে ২.৫৭ দিয়ে গুন করে যা দাঁড়াবে তাই হবে নতুন বেতনের পরিমান। তাহলে কতটা বেতন বাড়তে পারে এক একজন সরকারি কর্মীর?কনফেডারেশন অফ স্টেট গভর্নমেন্ট এমপ্লয়িজের সাধারণ সম্পাদক মলয় মুখোপাধ্যায় বলেন,   ধরা যাক কোন সরকারি কর্মীর বেসিক যদি ১০০০ টাকা হয় তাহলে মহার্ঘ্য ভাতা যোগ হয়ে বেতন দাঁড়াচ্ছে ১০০০+ ১২৫% ডিএ = ১০০০+১২৫০ অর্থাৎ ২২৫০টাকা। নতুন পদ্ধতিতে বেতনের পরিমান দাঁড়াবে ২২৫০x২.৫৭ = ৫৭৮২.৫ টাকা।
চলতি বছরে নতুন বেতন কমিশনের ঘোষণার সম্ভাবনা থাকলেও তা মেলার ইঙ্গিত রয়েছে আগামী বছর জানুয়ারি মাস থেকে। তবে বকেয়া কতটা মিলবে বা আদেও মিলবে কিনা তা নিয়ে ধোঁয়াশা রয়েছে। কনফেডারেশন অফ স্টেট গভর্নমেন্ট এমপ্লয়িজের সাধারণ সম্পাদক মলয় মুখোপাধ্যায় বলেন, "বেতন বৃদ্ধি সম্পূর্ন নির্ভর করে কমিশনের ওপর। একে বলা হয় বুস্টিং, কমিশনের এই বুস্টিং দেওয়ার অধিকার রয়েছে। আর বুস্টিং নির্ভর করে মূল্য সূচকের ওপর।" মলয় বাবুর দাবি, যতটাই বেতন বৃদ্ধি হোক তা যেন বামফ্রন্ট আমলের থেকে কম না হয়। পাশাপাশি সারা দেশের সাথে তাল মিলিয়ে এরাজ্যেও বেতন কমিশনের এফেক্ট দিতে হবে ১/১/২০১৬ থেকে।" 

Loading...

No comments

Theme images by caracterdesign. Powered by Blogger.