Header Ads

জাতীয় বক্সিং প্রতিযোগিতায় বড় সাফল্য আলিপুরদুয়ারের ২ যুবকের।

হরিপদ পাল, নজরবন্দিঃ জাতীয়স্তরে বক্সিং প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে বড় সাফল্য পেল আলিপুরদুয়ার জেলার আলিপুরদুয়ার ২ নং ব্লকের উত্তর পারোকাটার দুই যুবক রাকেশ শীলশর্মা ও সুরজিৎ মোদক। স্কুল গেমস ডেভলপমেন্ট ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনায় গত ১৯-২১ জুলাই হরিয়ানার নগরপালিকা স্টেডিয়ামে ওই প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। ওই প্রতিযোগিতার ৬০-৬৫ কেজি সিনিয়র বিভাগে অংশ নিয়ে রূপা জেতে রাকেশ। অন্যদিকে, একই প্রতিযোগিতার ৫০-৫২ কেজি জুনিয়র বিভাগে অংশ নিয়ে সোনা জেতে সুরজিৎ মোদক।
রাকেশ শীলশর্মা কামাখ্যাগুড়ি শহীদ ক্ষুদিরাম কলেজে থেকে স্নাতক। বক্সিংয়ের পাশাপাশি ক্যারাটেতেও তার দখল রয়েছে বলে জানা গিয়েছে। অন্যদিকে, সুরজিৎ কামাখ্যাগুড়ি হাই স্কুল থেকে এ বছরই উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছে। রাকেশ শীলশর্মা জানায়, 'জাতীয়স্তরে বক্সিং প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেছি। এর আগে দিল্লিতে সিলেকশন ফাইটে অংশ নিয়ে জাতীয় স্তরের প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের সুযোগ পাই। আলিপুরদুয়ার জেলা পরিষদের সভাধিপতি শীলা দাস (সরকার) সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। গ্রামে ফিরে এলাকার সর্ব স্তরের মানুষের শুভেচ্ছা ও ভালোবাসা পেয়েছি। আমার পরিবারের আর্থিক অবস্থা ভালো নয়। বাবা সামান্য কৃষক। আর্থিক প্রতিকূলতা ও পর্যাপ্ত পরিকাঠামোর অভাব থাকা সত্ত্বেও জাতীয়স্তরে দ্বিতীয় হয়েছি। জাতীয় স্তরের প্রতিযোগিতার পর এবার আন্তর্জাতিক স্তরের প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে দেশের নাম উজ্জ্বল করতে চাই। সেই লক্ষ্যে প্রস্তুতি চলছে।'
উত্তর পারোকাটা তেঁতুলতলা এলাকার বাসিন্দা সুরজিৎ মোদক জানায়, 'জাতীয়স্তরে বক্সিং প্রতিযোগিতার ৫০-৫২ কেজি জুনিয়র বিভাগে অংশ নিয়ে প্রথম হই। ওই প্রতিযোগিতায় সাফল্য পেয়ে খুবই ভালো লাগছে। পরিবারের আর্থিক অবস্থা ভালো নয়। বাবা দিনমজুরি করে সংসার প্রতিপালন করেন। সকলের আশীর্বাদ ও সহযোগিতা নিয়ে আগামীদিনে আরও এগোতে চাই।' সুরজিতের কিক বক্সিং ও ক্যারাটেতেও ভালো দখল আছে বলে জানা গিয়েছে। আন্তর্জাতিক স্তরের প্রতিযোগীতায় অঙ্গশ নিতে কিছুদিনের মধ্যেই দুবাইতে পারি দেবে দুজন। কিন্তু আর্থিক অসঙ্গতিই বাঁধা হয়ে দাড়িয়েছে দুজনের ক্ষেত্রেই। আলিপুরদুয়ার জেলা পরিষদের সভাধিপতি শীলা দাস (সরকার) বলেন, প্রত্যন্ত এলাকায় থেকে রাকেশ ও সুরজিৎ দুর্গম পথ অতিক্রম করে এই সাফল্য পেয়েছে। ওরা দুজন জেলার গর্ব। ওদের দেখে আগামীদিনের প্রতিযোগীরা উৎসাহ পাবে। এই দুজন পরবর্তী প্রজন্মের প্রেরণা।
Loading...

No comments

Theme images by enjoynz. Powered by Blogger.