মুখ্যমন্ত্রীর উচিত পদত্যাগ করে প্রায়শ্চিত্ত করা! কাটমানি প্রসঙ্গে বিস্ফোরক লকেট

নজরবন্দি ব্যুরো: কিছুদিন আগে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর দলের কর্মীদের কাটমানির টাকা ফিরিয়ে দিতে নির্দেশ দিয়েছিলেন। আর এর পর থেকে গোটা রাজ্য জুড়ে এই কাটমানি ইস্যুকে কেন্দ্রকরে বেশ উত্তপ্ত।
এবার কাটমানি ইস্যুতে রাজ্য সরকারের তীব্র সমালোচনা করলেন হুগলির সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়।
তাঁর দাবি, তৃণমূল চালিত সরকার গোটাটাই কাটমানির সরকার। তাই মুখ্যমন্ত্রীর এখনই পদত্যাগ করে প্রায়শ্চিত্ত করা উচিত। তিনি বলেন, "মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যখন স্বীকার করে নিয়েছেন, তার মানে তাঁর লোকজন কাটমানি খেয়েছে। আসলে উনি বুঝতে পারেননি যে গোটা সরকারটাই কাটমানির সরকার, চোরদের সরকারে পরিণত হয়েছে। এখন চোররাই চোরদের বিচার করতে বলছে। মুখ্যমন্ত্রীর উচিত এখনই পদত্যাগ করে প্রায়শ্চিত্ত করা।"
এদিকে ব্যান্ডেলের তৃণমূল নেতা দিলীপ রাম খুনের ঘটনায় তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বকেই দায়ি করলেন লকেট। তাঁর দাবি, টাকার বখরা নিয়ে দিলীপ রামকে খুন করিয়েছেন চুঁচুড়ার বিধায়ক অসিত মজুমদার। লকেট বলেন, "শুধুমাত্র হুগলি নয় বিজেপি যে জায়গায় জিতেছে সেখানেই দলীয় কর্মীদের টার্গেট করা হচ্ছে। ওরা সন্ত্রাস করে আমাদের কর্মীদের ফাঁসানোর চেষ্টা করছে। গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে কর্মীরা খুন হচ্ছে, আর দোষ চাপাচ্ছে বিজেপির উপর।
এর বিরুদ্ধে আমরা লড়ছি, লড়ব। দিলীপ রাম খুনের ঘটনায় আমাদের(বিজেপির) কেউ জড়িত নয়। আমরা চাই ঠিকঠাকভাবে তদন্ত হোক। সঠিক তদন্ত হলে তবেই আসল দোষীদের পাওয়া যাবে।"
এর জবাবে চুঁচুড়ার বিধায়ক অসিত মজুমদার বলেন, "উনি এত দেরিতে বললেন কেন ? যেদিন দিলীপ খুন হয়েছে সেদিনই আমি বলেছি, এর পিছনে বিজেপি-র হাত আছে।  সেদিন কেন বললেন না এর পিছনে অসিত মজুমদার আছে। আমি যদি দিলীপকে খুন করিয়ে থাকি তবে পুলিশ আমাকে গ্রেফতার করুক। পালিয়ে যাওয়ার লোক নই। লকেট যদি বাপের বেটি হয়, তাহলে এই তদন্তে সহযোগিতা করুক।"
DESCRIPTION OF IMAGE
Loading...

No comments

Theme images by caracterdesign. Powered by Blogger.