অনশন প্রত্যাহারের আর্জি শিক্ষামন্ত্রীর! প্রায় ৬ হাজার টাকা বেতন বাড়ছে প্রাথমিক শিক্ষকদের। #Exclusive

নজরবন্দি ব্যুরোঃ অবশেষে বেতন বাড়ছে শিক্ষকদের। যোগ্যতা অনুযায়ী বেতন বাড়ানোর দাবীতে গত ১৩ দিন ধরে অনশন করছেন অরাজনৈতিক প্রাথমিক শিক্ষক সংগঠন UUPTWA-র সদস্য রা। আজ সকাল থেকে সেই অনশনে যোগ দিয়েছেন কবি মন্দাক্রান্তা সেন, তিনি ২৪ ঘন্টার জন্যে অনশনে লিপ্ত হয়েছেন। পাশাপাশি বিশিষ্ঠ অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় আজ এক ভিডিও বার্তায় জানিয়েছেন, তিনি রীতিমত লজ্জিত এমন ঘটনা দেখে।
তাঁর কথায়, এমন একটা উন্নয়নশীলদেশে এমন ঘটনা কেন ঘটবে? শিক্ষামন্ত্রীর উচিত অনশনকারী শিক্ষকদের পাশে থেকে তাঁদের বক্তব্য শোনা এবং সমস্যার সমাধান করা। উল্লেখ্য, উন্নয়ন ভবনের অদূরে অনশন করছেন প্রাথমিক শিক্ষকরা। ইতিমধ্যেই একবার তাঁদের ডেকে পাঠিয়ে বৈঠক করেন শিক্ষামন্ত্রী। কিন্তু বৈঠক শেষে সংগঠনের প্রতিনিধিরা জানিয়ে দেন বৈঠকে খুশি নন তাঁরা, শিক্ষামন্ত্রী নতুন কিছু বলেননি, আগেও যা বলেছেন এখনও তা বলছেন। এদিকে শিক্ষামন্ত্রী সাফ জানান, "তাঁদের খুশি করা তাঁর কাজ নয়! দাবি নিয়ে ভাবনা চিন্তা হচ্ছে রাজ্যের কোষাগারের অবস্থা অনুযায়ী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।"
এই অবস্থায় নজরবন্দি সূত্র মারফত খবর পেয়ে গত ১৮-ই জুলাই একটি সংবাদ প্রকাশ করে যে শিক্ষামন্ত্রী এবং মুখ্যমন্ত্রী বৈঠক করছেন প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন বৃদ্ধির দাবি নিয়ে। আর সেই বৈঠকের সিদ্ধান্ত জানানো হবে ২১শে জুলাই তৃণমূলের শহীদ সমাবেশের পর নজরুল মঞ্চে।
সেই খবরের লিঙ্কঃ পে-কমিশন, PRT নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর সাথে বৈঠকে শিক্ষামন্ত্রী।সিদ্ধান্ত ঘোষণা আগামী সপ্তাহে #SuperExclusive
খবর অনুযায়ী ঠিক সাত দিন পর আজ মুখ্যমন্ত্রীর সাথে শিক্ষামন্ত্রীর আলোচনার ফল পেলেন শিক্ষকরা।
শিক্ষামন্ত্রী নজরুল মঞ্চের বৈঠকে জানিয়ে দিলেন প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন বৃদ্ধি হচ্ছে। শিক্ষকদের দাবি অনুযায়ী বেতন না বাড়লেও এবার  বর্তমান বেতনের থেকে মাসে কাছাকাছি ৬ হাজার টাকা বেতন বাড়ছে প্রাথমিক শিক্ষকদের। বর্তমানে রাজ্যের প্রাথমিক শিক্ষকদের পে স্কেল ৫৪০০-২৫২০০ টাকা। এই বেতন বেড়ে হচ্ছে ৭১০০-৩৭২০০ টাকা বলে খবর শিক্ষা দফতর সূত্রে যদিও এদিন এই ঘোষণা এড়িয়ে যান শিক্ষামন্ত্রী।আরও পড়ুনঃ কেন্দ্রীয় হারে মহার্ঘ্য ভাতা পাবেন রাজ্যের কর্মীরা? প্রতীক্ষার অবসান হবে আগামীকাল। #Exclusive  এদিন শিক্ষামন্ত্রী নজরুল মঞ্চে দলীয় শিক্ষক সংগঠনের সভায় জানান রাজ্যের প্রাথমিক শিক্ষকদের গ্রেড পে ২৬০০ টাকা যা বেড়ে হচ্ছে ৩২০০ টাকা। সম্ভব হলে গ্রেড পে ৩২০০ টাকার যায়গায় ৩৬০০ করা হবে। সূত্রের খবর, যেদিন থেকে যে শিক্ষক যোগ্যতামান পূর্ন করেছেন সেই শিক্ষক সেদিন থেকেই পাবেন নতুন স্কেলে বেতন।  বেতন বৃদ্ধির ছাড়পত্রও দিয়ে দিয়েছে অর্থ দফতর এখন শুধু কার্যকর হওয়ার অপেক্ষা।
অন্যদিকে UUPTWA শিক্ষক সংগঠনের অন্যতম দাবি বহুদূরে ট্রান্সফার হওয়া ১৪ জন সহকর্মীকে নিজের নিজের জেলায় ফিরিয়ে আনার ব্যাপারে শিক্ষামন্ত্রী জানিয়েছেন বদলি হওয়া শিক্ষকদের চাকরির নিয়ম। যেখানে শিক্ষক নেই প্রয়োজনে সেখানে যেতে হবে। তবে এই ১৪ জন শিক্ষকের বদলি সঠিক পদ্ধতিতে হয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখবেন বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী। এছাড়াও আন্দোলনকে কটাক্ষ করে বলেন.২৩শে মে থেকে নানা রঙের আন্দোলন চলছে। পরে উস্থির অনশনকারীদের অনশন প্রত্যাহার করার জন্যে আবেদন করেন তিনি। পাশাপাশি নাম না করে  UUPTWA কে শিক্ষামন্ত্রীর বার্তা " শিক্ষকদের দায়িত্ব পালন করতে হবে শুধু পাওনার কথা বললে হবে না।"
DESCRIPTION OF IMAGE
Loading...

3 comments:

  1. ভুলভাল খবর না দেখানোই বাঞ্চনীয়

    ReplyDelete
    Replies
    1. খবরের কোন অংশের তথ্য ভুল রয়েছে বলে আপনি মনে করেন? অনুগ্রহ করে নির্দিষ্ট করে জানান।

      Delete
  2. প্রাথমিক শিক্ষকদের স্যালারি প্রায় 6000 টাকা কোরে প্রতি মাসে বাড়ছে এই কথা কি শিক্ষামন্ত্রী বলেছেন ?
    সঠিক সংবাদ পরিবেশন করার চেষ্টা করুন

    ReplyDelete

Theme images by caracterdesign. Powered by Blogger.