দাদার হাতে তৈরি সোনালী প্রজন্মের শেষ স্তম্ভের বিদায় এবার সময়ের অপেক্ষা.।

প্রীতম পাল: সৌরভ গাঙ্গুলির তৈরি সোনালী প্রজন্মের শেষ স্তম্ভ এম এস ধোনি সম্ভবত বিদায় নিতে চলছেন হয়তো। কেও আবার বলছেন ২০২০-র টি-২০ বিশ্বকাপের পর তিনি অবসর নিতে পারেন। তবে তিনি যেদিনই অবসর নেননা কেন ঠিক সেই দিনটি হবে ভারতীয় ক্রিকেটে সৌরভ গাঙ্গুলি যুগের অবসান। ভারতীয় ক্রিকেটে যেমন স্বর্ণ যুগ এসেছে সৌরভ গাঙ্গুলির হাত ধরে তেমন কিছু খারাপের প্রবেশ হয়েছে তাকেই ঢাল বানিয়ে । তিনি না জেনেই হয়তো আজও খারাপটাকেও নিজের ভালোর অংশ ভেবেই অগ্রাধিকার দেন । ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে মাহির মন্থর ব্যাটিং নিয়েও শেষ পর্যন্ত মুখ খুলছিলেন শচীন টেন্ডুলকরও, তবুও সেদিন সৌরভ ক্লিন চিট দিয়েছিলেন ধোনি কে, আর সেমি-ফাইনালেও ধোনির পাশে দাঁড়ান সৌরভ ।
 ক্রিকেট কেরিয়ারের শেষভাগে যেভাবে লাঞ্ছনার স্বীকার হতে হয় তাকে।এবার তাঁর শিষ্য মাহি কেও সেই কঠিন বাস্তবের সামনেই দাঁড় করিয়ে দিয়েছে একদল মানুষ। কেউ মনে করছেন ধোনি চাননি বিরাটের হাতে ট্রফি উঠুক আবার কেউ বলছেন সেমি-ফাইনালে ধোনির মন্থর ব্যাটিং শেষদিকে চাপে ফেলে দেয় ভারতীয় দলকে। আবার কেউ বলছেন ধোনি সত্যি জেতার জন্য মাঠে নেমেছিলেন এতকিছুর পড়ও কিন্তু সৌরভ গাঙ্গুলীর কাছে আজও সবার সেরা মহেন্দ্র সিং ধোনিই ।
 অনেক বাঙালীর কাছে ধোনি আজও ভিলেন। কোথাও সৌরভ গাঙ্গুলীর অবসর এর ঘটনা আজও ধোনি কে দায়ী করে, কিন্তু যেদিন ধনি অবসর নেবে সেদিন বুঝতে পারবেন সৌরভের সাথে ধোনির সম্পর্কটা কতটা খাঁটি । যেদিন দুজনকে গ্যালারিতে বসে থাকতে দেখবেন কিন্তু সেই নীল রঙের জার্সি মাঠে খেলবে সেইদিন সব পরিস্কার হয়ে যাবে নিজেদের ভুল ভাঙবেই। শেষে একটাই কথা বলার সৌরভের সবচেয়ে প্রিয় শিষ্যও খুব শীঘ্রই ক্রিকেট দুনিয়াকে বিদায় জানাবেন। ভালো-মন্দ আলো-অন্ধকারের মিশ্রণে তৈরী সৌরভের ক্রিকেট প্রজন্মের শেষ বাতিটাও নিভে যেতে চলছে। ১৯৯৭ থেকে ২০১৯ বা ২০ সৌরভের হাতে তৈরী ভারতের সোনালী ক্রিকেট প্রজন্মের সমাপ্তি শুধু অপেক্ষা।

DESCRIPTION OF IMAGE
Loading...

No comments

Theme images by caracterdesign. Powered by Blogger.