প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন আরও কিছুটা বাড়বে! কেন? পড়ুন

নজরবন্দি ব্যুরো: শিক্ষামন্ত্রী তৃণমূলের প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির বৈঠক শিক্ষকদের গ্রেড-পে বৃদ্ধির ঘোষণা করেছিলেন। পার্থ বাবুর ওই ঘোষণার পর গতকাল সরকারি ভাবে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে গ্রেড-পে বৃদ্ধির ঘোষণা করে রাজ্য শিক্ষা দফতর।


ওই বিজ্ঞপ্তি থেকে জানা গিয়েছে, এবার থেকে যারা প্রাথমিক শিক্ষকের চাকরিতে নতুন করে যোগ দেবেন, তাঁরা রাজ্য সরকারের তিন নম্বর বেতন-ক্রম অনুযায়ী বেতন পাবেন।এবার কম্পিউটার শিক্ষকদের বেতন বাড়তে চলেছে, খুশির খবর শোনালেন শিক্ষামন্ত্রী। তাদের জন্য গ্রেড পে হবে ৩৬০০ টাকা। তাদের বেতন হবে রাজ্য সরকারের আপার ডিভিশন ক্লার্কদের বেতনের প্রায় সমান।

এক অর্থ দফতরের কর্তার কথা অনুসারে, সরকার দু-নম্বর থেকে শিক্ষকদের নিয়ে গিয়েছে তিন নম্বর গ্রেড-পেতে। কিন্তু পুরনো শিক্ষকদের অনেকেরই ব্যান্ড পে ৭১০০ টাকার বেশি হয়ে গিয়েছে। এর ফলে তাঁদের ক্ষেত্রে শুধু গ্রেড পে-র অংশটুকুই বাড়বে।
এর ফলে পুরনো শিক্ষক ও শিক্ষিকাদের মূল বেতন তেমন বাড়ছে না। এখন রাজ্য সরকারি কর্মীদের মোট বেতন মূল বেতনের ২.৪ গুণ। এর সঙ্গে যুক্ত হবে চিকিৎসার খরচ। মূল বেতন বেশ কিছুটা না বাড়লে মোট বেতন বাড়ার সুযোগ কম থাকে। মূল বেতন বেশি হওয়ায় এ বারের ইনক্রিমেন্ট ৩ শতাংশ ধরলে তাঁরাও কিছুটা উপকৃত হবেন বলে অনুমান। তবে যে সব শিক্ষক ও শিক্ষিকা উচ্চ মাধ্যমিক উত্তীর্ণ এবং দু-বছরের প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত, তাঁরাই এই নতুন বেতন-ক্রমের সুবিধা পাবেন। প্রাথমিক শিক্ষকেরা এই বর্ধিত বেতনের পরেই ষষ্ঠ বেতন কমিশনের সুযোগ পাবেন। এটা যদি হয় তাহলে তাঁদের বেতন আরও অনেকটা বাড়বে বলে অনুমান বিশেষজ্ঞদের।  
Loading...

No comments

Theme images by caracterdesign. Powered by Blogger.