রাজীবকে ধরতে তল্লাশি সাঁতরাগাছিতে, পিছোল শুনানি।


নজরবন্দি ব্যুরোঃ সারদা কান্ডে তথ্য প্রমাণ লোপাটের অভিযোগ কলকাতা পুলিশের প্রাক্তন নগরপাল রাজীব কুমার। আর এই তদন্তে জিঞ্জাসাবাদ করার জন্যই সিবিআই রাজীব কুমারকে জেরা করতে চায়। আইনি 'রক্ষাকবচ' উঠে যাওয়ার পর কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার তৎপরতা বেড়ে যায়। গা ঢাকা দিয়ে দেয় প্রাক্তন নগরপাল। এরপরেই রাজীব কুমার বারে বারে আদালতের দ্বারস্থ হয়ে চলেছেন, সিবিআই এর জেরাকে এড়িয়ে চলার জন্য।এরই মধ্যে সাতরাগাছিতে রাজীব কুমারের খোঁজে সিবিআই টিম চলে যায়। আর কলকাতা হাইকোর্টে রাজীব কুমারের আগাম জামিনের শুনানি পিছিয়ে গেল আরও এক দিন।
আলিপুর জেলা ও দায়রা আদালতে আগাম জামিনের আবেদন খরিজ হওয়ার পর, সোমবার কলকাতা হাইকোর্টের শরণাপন্ন হয়েছিলেন রাজ্যের গোয়েন্দা প্রধান রাজীব কুমার। মঙ্গলবার বিচারপতি সহিদুল্লা মুনশি ও বিচারপতি শুভাশিস দাশগুপ্তের ডিভিশন বেঞ্চে মামলার শুনানির সম্ভাবনা ছিল। কিন্তু এ দিন মামলার শুনানি আরও একদিন পিছিয়ে যায়। বুধবার রাজীবের আগাম জামিনের আবেদন শুনবে হাইকোর্টের ওই ডিভিশন বেঞ্চ। এক দিকে যেমন আইনি ল়ড়াইয়ের জন্যে তৈরি হয়েছে সিবিআই। তেমনই রাজীবের খোঁজে তল্লাশি অভিযানও চলছে। গোয়েন্দাদের একটি দল কলকাতা ছাড়িয়ে সাঁতরাগাছির বিভিন্ন জায়গায় রাজীবের খোঁজ করছেন। সিবিআইয়ের আরও চারটি দল কলকাতার বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশি চালাচ্ছে। অন্য দিকে, বুধবার আইন লড়াইয়ের জন্যে তৈরি হচ্ছেন গোয়েন্দারা। আইনজীবী ওয়াই জে দস্তুর এবং কালীচরণ মিশ্রের সঙ্গে এ বিষয়ে পরামর্শ করছেন গোয়েন্দারা। আদালত সূত্রে খবর, সোমবার রাজীবের হয়ে আগাম জামিনের আবেদন করতে হাইকোর্টে আসেন তাঁর স্ত্রী সঞ্চিতা কুমার। দুপুরে রাজীবের আগাম জামিনের আবেদন দাখিল হয়। তা জানতে পেরে সিবিআইয়ের অফিসারেরাও হাইকোর্টে পৌঁছন। এ দিন মামলার শুনানির জন্যে দু’পক্ষই তৈরি ছিল। কিন্তু এ দিন শুনানি না হওয়ায় রাজীব কিছুটা বিপাকেই পড়লেন বলে মনে করছেন আইনজীবীদের একাংশ।
Loading...

No comments

Theme images by caracterdesign. Powered by Blogger.