Header Ads

ভারতকে আরও সুন্দর এবং শ্বাসযোগ্য করে তুলতে গাছ লাগানোর প্রস্তাব দিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিলেন সোমনাথ।


নজরবন্দি ব্যুরোঃ বিশ্ব উষ্ণনায়ন বা গ্লোবাল ওয়ার্মিং সারা দুনিয়াতে থাবা মেরেছে। দিন দিন পৃথিবীর তাপমাত্রা বেড়ে চলছে। এর জন্য দায়ী মানুষের অবিঞ্জোচিত যথেচ্ছ বৃক্ষচ্ছেদন। ভারত এই সমস্যার বাইরে নয়। এদেশেও বিশ্ব উষ্ণনায়ন থাবা বসিয়েছে। মানব জাতি এবং মানব সভ্যতাকে এই করাল গ্রাসের হাত থেকে মুক্তির একটাই উপায় বেশি বেশি করে গাছ লাগানো। আর এই উদ্যোগ নিয়েছেন বিশিষ্ট পরিবেশবিদ সোমনাথ মুখোপাধ্যায়্।
সম্প্রতি বিশিষ্ট এই পরিবেশবিদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে ভারতে সবুজায়ন আন্দোলনের স্বপক্ষে একটি চিঠি দিয়েছেন। চিঠিতে পরিবেশবিদ সোমনাথ মুখোপাধ্যায় দেশে বেশি করে গাছ লাগানোর ঊপরে জোর দিয়েছেন। চিঠিতে বিশ্ব উষ্ণনায়নের ফলশ্রুতিতে আমাজন বনভুমি, ক্যালিফোনিয়া ওয়াইল্ড ফায়ার প্রসঙ্গ টেনে সামাজিক বনসৃজন প্রকল্পকে আরও বেশি বেশি করে সমাজের প্রতিটি স্তরে গণ সামাজিক উদ্যোগে পরিণত করার বিষয়ে আলোকপাত করেছেন।
প্রধানমন্ত্রীক দেওয়া চিঠিতে সোমনাথ মুখোপাধ্যায় বায়ু দূষণের প্রতিকার হিসেবে বৃক্ষরোপণকেই একমাত্র প্রতিরোধের পথ হিসেবে উল্লেখ করেছেন। অধিক মাত্রায় গাছ লাগানোর মধ্যে দিয়েই একমাত্র বায়ু দূষণকে প্রতিরোধ করা সম্ভব। আর তাই সামাজিক বনসৃজন প্রকল্পকে শুধু দেশের রাজধানীর মধ্যে সীমাবদ্ধ না রেখে গোটা দেশের শহর থেকে শহরতলী, এমনকি গ্রামে-গঞ্জে ছড়িয়ে দেওয়ার বিষয়ে গুরুত্ব আরোপ করেছেন। বিশ্ব উষ্ণনায়ন বা গ্লোবাল ওয়ার্মিং এর হাত থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য সোমনাথ মুখোপাধ্যায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে আবেদন রেখেছেন সামাজিক বনসৃজনের জন্য নুন্যতম ১ কোটি চারাগাছ রোপণের প্রকল্প সরকার গ্রহণ করুক। 
Loading...

কোন মন্তব্য নেই

lishenjun থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.