Header Ads

বলিউডের কায়দায় যোগীর রাজ্যে খুন।


নজরবন্দি ব্যুরোঃ বিজেপি শাসিত উত্তরপ্রদেশে যোগী আদিত্যনাথের শাসনকালে ধর্ষণ আর খুনের পালা নিত্য হয়ে উঠেছে। মোটরবাইকে বেঁধে টেনে হিঁচড়ে ১৫ কিলোমিটার চক্কর কেটে রাস্তায় মৃতদেহ পড়ে রয়েছে। বলিউডে মাফিয়া জগৎ নিয়ে অনেক চলচ্চিত্র নির্মিত হয়েছে। নৃশংসতা আর বদলা নেওয়ার মানসিকতার উগ্র বাসনার বলিউডের চিত্রনাট্য হয়ে উঠেছে হাপুর হত্যাকান্ড।
গত মঙ্গলবার উত্তরপ্রদেশের মেরঠে মুকুল কুমার নামে এক যুবকের মৃত্যুর ঘটনা শুধু উত্তরপ্রেদেশের রাজনীতিতে নয়, সারা দেশের রাজনীতির ভিত নাড়িয়ে দিয়েছে।মৃত মুকুল কুমারের গলায় দড়ি বেঁধে মোটরবাইকের সঙ্গে ওই দড়ি আটকে ১৫ কিলোমিটার চক্কর দেওয়ার পর মেরঠের খারখোডা এলাকায় মৃতদেহ ফেলে রেখে চম্পট দেয় দুস্কৃতিরা। ১৫ কিলোমিটার তানা হ্যাচরার ফলে মৃতদেহের বাম পা শরির থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।  ডান পা শরীর থেকে ঝুলছিল। মুখে এবং শরীরের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। মৃতদেহের পাশে একটি মোটরবাইক পড়েছিল। স্থানীয় বাসিন্দারা মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয়।
মৃত মুকুল কুমারের বাড়ি হাপুর জেলার মান্ডি এলাকায়। পুলিশ নিশ্চিত নয় গলায় দড়ি দেওয়ার ফলে যুবকের মৃত্য হয়েছে না কি যুবকটির শরীরের গুলির চিহ্ন রয়েছে, এর ফলে যুবকের মৃত্য হয়েছে। দেহটিকে ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। তবে পুলিস ঘটনার তদন্ত শুরু করে দিয়েছে। মৃতের পরিবার দাবি করেছে, মৃত যুবকের সঙ্গে কারোর শত্রুতা ছিল না। গত বছরই মুকুল কুমার নিজের পড়াশুনো শেষ করেছিল। পরিবারের ছেলের এমন নৃশংস মৃত্যুতে ভেঙে পড়েছে গোটা পরিবার।
পুলিশ একটি বিষয়ে নিশ্চিত হয়ে উঠেছে এই ঘটনা নিছকই লুটপাতের ঘটনা নয়। নৃশংসতার ধরন দেখে পুলিসের অনুমান চরম বদলার মানসিকতা থেকেই এই খুনের ঘটনা। ইতিমধ্যেই পুলিশের হাতে এই খুনের ঘটনার গুরুত্বপূর্ণ লিড উঠে এসেছে। ওই তথ্যের ওপর ভিত্তি করে পুলিশ তদন্ত প্রক্রিয়াকে এগিয়ে নিয়ে চলেছে। 
Loading...

কোন মন্তব্য নেই

lishenjun থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.