শিক্ষকরা বর্ধিত হারে বেতন কবে পাবেন? ডিএ, পে কমিশনের ভবিষ্যৎ কি?

অমিত সরকারঃ সরকারি কর্মচারীদের ডিএ পে কমিশন নিয়ে কি সুখবর আসবে নাকি আবার কানা মামা তেই সন্তুষ্ট থাকতে হবে সব মহল তাকিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর দিকে? তৃণমূল প্রভাবিত পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারি কর্মচারী ফেডারেশনের সাংগঠনিক সমাবেশকে কেন্দ্র করে রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের মধ্যে জোর চর্চা শুরু হয়েছে। কেননা, অতীতে এই ধরনের সমাবেশ থেকে কর্মচারীদের জন্য ভাল খবর ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। অর্থ দফতর সূত্রের দাবি, আনুষ্ঠানিকভাবে ষষ্ঠ বেতন কমিশনের চূড়ান্ত রিপোর্ট এখনও নবান্নে জমা পড়েনি। তাই আগেভাগে বেতন কমিশন নিয়ে কোনও ঘোষণা না হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। যদিও কমিশনকে দ্রুত রিপোর্ট জমা করার আবেদন জানিয়ে মুখ্যমন্ত্রী অন্তর্বর্তীকালীন বিশেষ ভাতার ঘোষণা করতে পারেন।
 বকেয়া ডিএ এবং ষষ্ঠ বেতন কমিশন সংক্রান্ত পাওনাগণ্ডা নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণার অপেক্ষায় তাঁরা। অন্যদিকে, প্রাথমিক বিদ্যালয় সংসদ সভাপতি মানস দাস বলেন, "অগস্ট মাস থেকেই শিক্ষক-শিক্ষিকাদের বর্ধিত হারে বেতন দেওয়া হবে। কিন্তু বর্তমানে অনলাইন পদ্ধতিতে বেতন দেওয়ার ব্যবস্থা চালু আছে। তার সিস্টেম আপডেট করতে হবে। এ জন্য কিছুটা সময় লেগে যাচ্ছে। এ নিয়ে শিক্ষক-শিক্ষিকাদের ভয় পাবার কিছু নেই।" আগেই প্রাথমিক স্কুল শিক্ষক-শিক্ষিকাদের বর্ধিত হারে বেতন দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছিল রাজ্য সরকার। এমনকি সেই ঘোষণায় বলা হয়ে ছিল, গত অগস্ট মাস থেকে বর্ধিত বেতন কার্যকর করা হবে।
 কিন্তু তা করা হয়নি। এই প্রসঙ্গে পশ্চিমবঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির জেলা সাধারণ সম্পাদক অরূপকুমার ভৌমিকের অভিযোগ, "রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী প্রাথমিক শিক্ষক-শিক্ষিকাদের অগস্ট মাস থেকে বর্ধিত হারে বেতন দেওয়ার কথা জানিয়ে ছিলেন এর পরে জারি হয় সরকারি বিজ্ঞপ্তি। সম্প্রতি জেলা প্রাথমিক সংসদ সভাপতি অবর বিদ্যালয় পরিদর্শকদের আগের বেতন কাঠামো অনুসারে বেতন দেওয়ার কথা বলেছেন। তাই হয়তো সেপ্টেম্বর মাসেও বর্ধিত হারে বেতন পাওয়া যাবে না।"
Loading...

No comments

Theme images by caracterdesign. Powered by Blogger.