Header Ads

দীপাবলীর রোশনাইতে আধার নেমে এসেছে রাজ্যের কয়েকশো শ্রমিকদের, জানতে হলে পড়ুন।

নজরবন্দি ব্যুরোঃ কালীপুজো আর দীপাবলীর রোশনাইতে জগৎ সংসার আলোকিত। আলোর উৎসবের মাঝেও আধার নেমে এসেছে আরামবাগ হ্যাচারিরজ লিমিটেডের রাজনগরের তাতিপাড়ার ইউনিটে। হঠাৎ করে 'নোটিশ অফ ক্লোজার' জারি হওয়ায় কর্মহীন হয়ে পড়েছে প্রায় দুশো কর্মচারি।নোটিশে কারণ হিসেবে ইউনিট কর্তৃপক্ষ উল্লেখ করা হয়েছে, নোটবন্দি এবং জিএসটি চালুর পর থেকে পোলট্রি ব্যবসায় মন্দা সঙ্গে কর্মচারিদের বিশৃঙ্খলা ও অধিকারিকদের প্রতি কর্মচারিদের দুর্ব্যবহার দায়ী করা হয়েছে। আকস্মিক এই নোটিস জারির পর ইউনিটের সামনে বিক্ষোভ দেখায় শ্রমিকেরা। শ্রমিকদের দাবি, পরিকল্পনা, ব্যবস্থাপনা সবই ছিল ইউনিটে।বেতন ছিল অনিয়মিত এবং পুজোর বোনাস দেয়নি ইউনিট কর্তৃপক্ষ। শ্রমিকদের দাবি, ইউনিট আধিকারিকদের সঙ্গে কোন দুর্ব্যবহার করা হয়নি। বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি ছিল না। শুধুমাত্র ইউনিট কর্তৃপক্ষের খামখেয়ালি মনোভাবের জন্য শ্রমিক এবং তাঁদের পরিবারের জীবনে দুর্যোগ নেমে এসেছে। ইউনিট ম্যানেজার প্রতাপ সিংহ জানিয়েছেন, 'ইউনিট বন্ধের কারণ নোটিসে রয়েছে। এরপর যা বলার উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ জানাবে।' কয়েকশো কোটি টাকা বিনিয়োগ করে ইউনিটের পোলট্রি ফার্মে ১ লক্ষ ডিম পাড়া মুরগি রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছিল। এছাড়াও সপ্তাহে ৩ লক্ষ ৬০ হাজার ডিম থেকে মুরগির বাচ্চা ফতানোর যন্ত্রপাতি ইউনিটে রয়েছে। মুরগির খাবার তৈরির ইউনিট রয়েছে। কর্মহীন শ্রমিকেরা দাবি করেছে, ভালই ছলছিল এই ইউনিট। এই ইউনিট ঘিরে স্থানীয় মানুষদের জীবনেও আর্থিক সমৃদ্ধি তৈরি হয়েছিল। শ্রমিকেরা অভিযোগ করে দাবি করেছে, পুজোর আগেও ইউনিট বন্ধ করা হয়েছিল। আশ্বাস দেয়া হয়েছিল  শ্বরমিকদের বকেয়া বেতন এবং বোনাস মিটিয়ে দেওয়া হবে। কিন্তু চক্রান্ত করে এই ইউনিট বন্ধ করে দেওয়া হল। এই বিষয় নিয়ে আমরা প্রশাসনের কাছে  যাবো।     
Loading...

No comments

Theme images by enjoynz. Powered by Blogger.