Header Ads

রাজ্যে আবার টানা ছুটি! মহার্ঘ্য ভাতা না ছুটি কোনটা প্রাধান্য পাচ্ছে কর্মচারীদের কাছে।

নজরবন্দি ব্যুরোঃ ছুটির ব্যাপারে বরাবরই উদার রাজ্যের মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়! সম্প্রতি পুজো সিরিজের ১৪ দিনের ছুটি উপভোগ করেছেন রাজ্যের কর্মচারীরা। সেই ছুটির রেস কাটতে না কাটতেই আবার টানা ছুটির হাতছানি রাজ্য সরকারি কর্মীদের সামনে। আসন্ন কালী ও ছটপুজো উপলক্ষে সামান্য প্ল্যান করলেই আবার টানা ১০ দিনের ছুটি উপভোগ করতে পারবেন! কিভাবে?
৩দিন পর আগামী ২৭শে অক্টোবর কালী পুজো। কিন্তু কালীপুজো পড়েছে রবিবার আর রবিবার মানেই ছুটির দিন তাই মমতা বন্দোপাধ্যায় ছুটি ঘোষণা করেছেন পরের দিন অর্থাৎ সোমবার। পাশাপাশি মঙ্গলবার পড়েছে ভাইফোঁটা আর ভাইফোঁটা উপলক্ষে সরকার ছুটি দিয়েছে পরের দিন অর্থাৎ বুধবার! অফিস খোলার কথা বৃহস্পতিবার, ৩১শে অক্টোবর। অন্যদিকে শনি রবি স্বাভাবিক ভাবেই আবার ছুটির দিন, এদিকে রবিবার পড়েছে ছট পুজো! সেই উপলক্ষে আবার সোমবার ছুটি। তাই যদি কোন ভাবে বৃহস্পতি আর শুক্রবার টি ম্যানেজ করা যায় তাহলে রাজ্যের সরকারি কর্মীরা টানা ১০ দিনের ছুটি উপভোগ করতে পারবেন।
যদিও রাজ্যের সরকারি কর্মীরা এই ছুটিকে খুব ভালভাবে নিতে পারছেন না। অভিযোগ, তাদের ন্যুনতম আশাও মেটেনি মহার্ঘ্য ভাতা বা বেতন কমিশনের ক্ষেত্রে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্য সরকারি কর্মীদের দাবি অনুযায়ী মহার্ঘ্য ভাতা ঘোষনা করে পে কমিশন ঘোষণা করেননি। এমনকি মহার্ঘ্য ভাতা পাবেন কিনা সেটা নিয়েও কেউ নিশ্চিত নন। তাই এই পরিস্থিতিতে ছুটির প্রলেপ কতটা আর্থিক জখম মেটাবে তা বলবে সময়। 



 দুর্গাপুজো ও লক্ষ্মীপুজো মিলিয়ে টানা ১৪ দিন ছুটি হবে শেষ হয়েছে৷ এবার দীপাবলিতে আরও এক দফায় টানা ছুটি পেতে চলেছেন বাংলার সরকারি কর্মচারীরা৷ মাঝে দু’দিন ছুটি ম্যানেজ করতে পারলে কালী পুজো, ছট পুজো মিলিয়ে টানা ১০ দিন ছুটি মিলতে পারে সরকারি কর্মীদের৷ আগামী ২৭ অক্টোবর রবিবার কালীপুজো৷ আর আগের দিন শনিবার পড়ে যাওয়ায় এমনিতেই ছুটি পাবেন সরকারি কর্মীরা৷ আবার কালীপুজো রবিবার পড়ে যাওয়ায় সোমবার অতিরিক্ত ছুটি দেওয়া হয়েছে৷ মঙ্গলবার ভাইফোঁটায় ছুটি থাকবে৷ পাশাপাশি বুধবারও ভাইফোঁটা উপলক্ষ্যে অতিরিক্ত ছুটি দেওয়া হয়েছে৷ ফলে শনিবার থেকে বুধবার পর্যন্ত টানা ৫ দিন ছুটি পাবেন সরকারি কর্মচারীরা৷ পাঁচ দিনের এই ছুটি শেষে সরকারি অফিস খুলবে ৩১ অক্টোবর বৃহস্পতিবার৷ ফের শনিবার ছুটি সরকারি দপ্তরে৷ ছট পুজোর রবিবার পড়ে যাওয়ায় ৪ নভেম্বর সোমবার ছুটি ঘোষণা করেছে রাজ্য সরকার৷ এক্ষেত্রেও টানা ৩ দিন ছুটি পাচ্ছেন সরকারি কর্মচারীরা৷ এক্ষেত্রে কোনও সরকারি কর্মী যদি বৃহস্পতিবার এবং শুক্রবার ছুটি নিতে পারেন, তাহলে তিনি টানা ১০ দিন ছুটি পাবেন৷ মাঝারি ভ্রমণে যাওয়ার ক্ষেত্রেও যা যথেষ্ট৷ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃণমূল প্রভাবিত সরকারি কর্মচারী সংগঠন পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারি কর্মচারী ফেডারেশনের সভায় বলেছিলেন, এত ছুটি সরকারি কর্মীরা কি আগে পেতেন? যদিও এই অতিরিক্ত ছুটিকে ভালো হবে নিচ্ছেন না সরকারি কর্মচারীদের সংগঠন কর্মচারী যৌথ মঞ্চ৷ সংগঠনের তরফে জানানো হয়েছে, সরকারি কর্মীদের ন্যায্য পাওনা দেওয়া হচ্ছে না৷ স্যাটের নির্দেশ মেনে মহার্ঘভাতা না দিয়ে নতুন বেতন কমিশন ঘোষণা করে দিয়েছে রাজ্য সরকার৷ আসলে বাড়তি ছুটি দিয়ে সরকারি কর্মীদের তুষ্ট করতে চাইছেন মুখ্যমন্ত্রী৷ এতে সরকারি কর্মীদের লাভ কিছু হচ্ছে না৷ পরিকল্পনা করেই এই সমস্ত ছুটি দেওয়া হচ্ছে বলেও অভিযোগ তুলেছে সরকারি কর্মচারী সংগঠন৷
Loading...

No comments

Theme images by lishenjun. Powered by Blogger.